বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > সমাপ্ত-মুলতুবির সূক্ষ্মতায় ফেঁসে শুভেন্দু-মনোজরা, পাবেন না মাসিক ৬০ হাজার ভাতা
৬ এপ্রিল থেকে বিধানসভার বিভিন্ন কমিটির বৈঠক ফের শুরু হচ্ছে, তবে সেখানে থাকতে পারবেন না মনোজ টিগ্গা, শুভেন্দু অধিকারীরা।  (PTI)

সমাপ্ত-মুলতুবির সূক্ষ্মতায় ফেঁসে শুভেন্দু-মনোজরা, পাবেন না মাসিক ৬০ হাজার ভাতা

  • ৬ এপ্রিল থেকে বিধানসভার বিভিন্ন কমিটির বৈঠক ফের শুরু হচ্ছে। 

কয়েকদিন আগেই বিধানসভার অধ্যক্ষ সাসপেন্ড করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী, মিহির গোস্বামী, মনোজ টিগ্গাসহ বিজেপির মোট ৭ বিধায়ককে। এই বিধায়করা এবারে বিধানসভার বিভিন্ন কমিটির বৈঠকেও হাজির থাকতে পারবেন না। এই সংক্রান্ত কোনও কথা এখনও স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখে শোনা যায়নি। তবে বিধানসভা সূত্রে খবর, বিধানসভার বৈজেট অধিবেশন ‘মুলতুবি’ হয়েছে, তা ‘সমাপ্ত’ হয়নি এখনও। এই আবহে সাসপেন্ড বিধায়করা এখনও বিধানসভার কোনও কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবেন না। পাশাপাশি কমিটিতে হাজিরা না দিতে পারলে তাদের ভাতাও বন্ধ থাকবে বলে জানা গিয়েছে।

উল্লেখ্য, করোনা আবহে গত জানুয়রিতে সকল কমিটির বৈঠক স্থগিত করা হয়েছিল। তবে ফের ৬ এপ্রিল থেকে এই কমিটিগুলির বৈঠক হবে। এই আবহে বৃহস্পতিবার ৪১টি কমিটির চেয়ারম্যানদের সঙ্গে বৈঠক করেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে এই বৈঠকগুলিতে অংশ নিতে পারবেন বিজেপির সাত সাসপেন্ড বিধায়ক। প্রসঙ্গত, এর আগে বগটুইকাণ্ড নিয়ে শাসক-বিরোধী তরজা তুঙ্গে উঠলে বিধানসভায় হাতাহাতি হয়। সেই ঘটনায় বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী, মুখ্যসচেতক মনোজ টিগ্গা, নাটাবাড়ির বিধায়ক মিহির গোস্বামী, শিলিগুড়ির বিধায়ক শঙ্কর ঘোষ, পুরুলিয়ার বিধায়ক সুদীপ মুখোপাধ্যায়, ফালাকাটার বিধায়ক দীপক বর্মণ, জয়পুরের বিধায়ক নরহরি মাহাত। বৈঠকে হাজির না থাকতে পারায় মাসিক ৬০ হাজার টাকা ভাতা তারা পাবেন না। এদিকে কমিটির চেয়ারম্যানদের বৈঠকে বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন যে প্রতিটি কমিটির চেয়ারম্যানের জন্য এখন থেকে ১০০ লিটার পেট্রল বরাদ্দ থাকবে।

উল্লেখ্য, গত সোমবারই বিধানসভা অধিবেশনের শেষ দিন ছিল। এদিন অধিবেশনের শুরুতে স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভর্ৎসনার মুখে পড়েন বিজেপি বিধায়করা। এর পরই তৃণমূলের আনা প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে বিজেপির সাত বিধায়ককে সাসপেন্ড করেন স্পিকার। এর আগে তৃণমূল বিধায়কদের সঙ্গে বিজেপির জনপ্রতিনিধিদের মারপিটে বিজেপির পরিষদীয় দলের মুখ্য সচেতক মনোজ টিগ্গার জামা ছিঁড়ে যায়। তাঁর বুকে চোট লেগেছে বলে জানা গিয়েছে। পাশাপাশি চুঁচুড়ার তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদারের নাক ফেটে যায়। অসিতবাবুর অভিযোগ, বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী তাঁর নাক ফাটিয়ে দিয়েছিলেন। এই আবহে বিজেপি বিধায়কদের সাসপেন্ড করা হয়। এই নিয়ে যদিও বিজেপি বিরোধিতা করে। এদিকে বিজেপির তরফে মনোজ টিগ্গা জানান, কমিটিতে যোগ দিতে না পারা প্রসঙ্গে এখনও বিধানসভা থেকে কিছু বলা হয়নি দলকে।

বন্ধ করুন