বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অখিলকে অপসারণের দাবিতে রাজভবনে BJP বিধায়করা, শুভেন্দু বললেন, ওকে সরাতেই হবে

অখিলকে অপসারণের দাবিতে রাজভবনে BJP বিধায়করা, শুভেন্দু বললেন, ওকে সরাতেই হবে

রাজভবনে বিজেপি বিধায়করা।

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, ‘ওই মন্তব্যের পর ৭২ ঘণ্টা কেটে গেলেও মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যপালের কাছে অখিল গিরিকে অপসারণের সুপারিশ করেননি। আমরা শনিবার রাজ্যপালকে এব্যাপারে ই মেইলে জানিয়েছি। আজ ৫০ জন বিধায়ক রাজভবনে এসে লিখিতভাবে জানালাম।

রাষ্ট্রপতিকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্যের জন্য রাজ্যের মন্ত্রী অখিল গিরিকে অপসারণের দাবিতে রাজভবনে স্মারকলিপি জমা দিল বিজেপির প্রতিনিধিদল। প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বে ছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এদিন স্মারকলিপি জমা দিয়ে বেরিয়ে রাজ্যপালের ভূমিকায় উষ্মা প্রকাশ করতে দেখা যায় শুভেন্দুবাবুকে।

এদিন বিকেলে বিধানসভার সামনে থেকে মিছিল করে রাজভবনে যান বিজেপি বিধায়করা। প্রত্যেকের হাতে ছিল জাতীয় পতাকা। বুকে ছিল রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর ছবি। কণ্ঠে ছিল, গৌরীপ্রসন্ন মুখোপাধ্যায়ের ‘মা গো ভাবনা কেন’ গানটি। যদিও এদিন রাজভবনে ছিলেন না রাজ্যপাল। তাঁর আধিকারিকদের কাছে স্মারকলিপি জমা দেন বিরোধী দলনেতা।

রোজ গোলাপ ও একটি করে ছবি পাঠানো হবে শুভেন্দুকে, আজ থেকে কর্মসূচি শুরু তৃণমূলের

এর পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, ‘ওই মন্তব্যের পর ৭২ ঘণ্টা কেটে গেলেও মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যপালের কাছে অখিল গিরিকে অপসারণের সুপারিশ করেননি। আমরা শনিবার রাজ্যপালকে এব্যাপারে ই মেইলে জানিয়েছি। আজ ৫০ জন বিধায়ক রাজভবনে এসে লিখিতভাবে জানালাম। মুখ্যমন্ত্রী যখন কিছু করেননি রাজ্যপাল তাঁর সংবিধান প্রদত্ত ক্ষমতা ব্যবহার করুন। মুখ্যমন্ত্রীকে পরামর্শ দিন। উনি ইম্ফল, চেন্নাই, দিল্লি যেখানেই থাকুন, মুখ্যমন্ত্রীকে পরামর্শ দিন।’

শুভেন্দুবাবু হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘বিধানসভার শীতকালীন অধিবেশনের আগে অখিল গিরিকে বরখাস্ত করা না হলে অধিবেশনে শালীনতা মেনে প্রতিবাদ জানাবে বিজেপি।’

 

বন্ধ করুন