বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Tala Bridge: দিন-রাত চলছে কাজ, পুজোর আগেই চালু হতে পারে টালা ব্রিজ
নির্মিয়মান টালা ব্রিজের তদারকি করছেন বিধায়ক অতীন ঘোষ। ফাইল ছবি।
নির্মিয়মান টালা ব্রিজের তদারকি করছেন বিধায়ক অতীন ঘোষ। ফাইল ছবি।

Tala Bridge: দিন-রাত চলছে কাজ, পুজোর আগেই চালু হতে পারে টালা ব্রিজ

  • আগে তালা ব্রিজ ছিল ৩ লেনের এবার সেই ব্রিজ ৪ লেন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে। এই ব্রিজের আগে যেখানে ১৫০ টন ভারবহন ক্ষমতা ছিল এখন নতুন ব্রিজ ভারবহন ক্ষমতা হচ্ছে ৩৫০ টন অর্থাৎ দ্বিগুণেরও বেশি। দ্রুত গতিতে চলছে এই ব্রিজের বাকি অংশের কাজ।

উত্তর কলকাতার সঙ্গে দক্ষিণ এবং মধ্য কলকাতার সংযোগকারী টালা ব্রিজ পুজোর আগে চালু হতে চলছে। নির্মীয়মান তালা ব্রিজ পরিদর্শন করে এমনটাই জানালেন কলকাতা পুরসভার ডেপুটি মেয়র বিধায়ক অতীন ঘোষ। মাঝেরহাট ব্রিজের ধাঁচে তৈরি হওয়া এই টালা ব্রিজ কলকাতার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্রিজগুলির মধ্যে একটি। ২০২০ সালের ৩১ জানুয়ারি এই ব্রিজ ভেঙে ফেলার কাজ শুরু হয়। সেই দীর্ঘ সময় থেকেই বন্ধ ছিল এই ব্রিজ। ফলে গত দু'বছর ঘুরতি পথে উত্তর কলকাতার মানুষের যাতায়াত করতে হচ্ছে। তবে এই ব্রিজ চালু হয়ে গেলে সেই সমস্যার সমাধান হবে।

মাঝেরহাটের ধাঁচে তৈরি হওয়া এই ব্রিজের মোট খরচ ৪৫০ কোটি টাকা। ৭৫০ মিটার দীর্ঘ এই সেতুর দু পাশেই থাকবে মানুষের হাঁটার রাস্তা। তাছাড়া আগে তালা ব্রিজ ছিল ৩ লেনের এবার সেই ব্রিজ ৪ লেন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে। এই ব্রিজের আগে যেখানে ১৫০ টন ভারবহন ক্ষমতা ছিল এখন নতুন ব্রিজ ভারবহন ক্ষমতা হচ্ছে ৩৫০ টন অর্থাৎ দ্বিগুণেরও বেশি। দ্রুত গতিতে চলছে এই ব্রিজের বাকি অংশের কাজ। এনিয়ে নজরদারি চালাচ্ছে পুরসভা। গতকাল কলকাতা পুরসভার ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ পুর আধিকারিক এবং অন্যান্য ইঞ্জিনিয়ারদের নিয়ে ব্রিজ পরিদর্শন করেন। ব্রিজ পরিদর্শন করার পর তিনি জানিয়েছেন, ব্রিজের বাকি অংশের নির্মাণ দ্রুত শেষ করার জন্য পূর্ত দফতরের পাশাপাশি কলকাতা পুরসভা নজরদারি চালাচ্ছে। দিনরাত কাজ চলছে। আশা করা হচ্ছে পুজোর আগেই এই ব্রিজের উদ্বোধন হবে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই ব্রিজের উদ্বোধন করবেন বলে তিনি জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ৩১ জানুয়ারি এই ব্রিজ ভেঙে ফেলার কাজ শুরু হলেও রেলের অংশে ব্রিজ নির্মাণের অনুমোদন পাওয়া যায় ওই বছরের ডিসেম্বর মাসে। সেখানে নির্মাণ শুরু হয় ২০২১ সালের জানুয়ারিতে। এই সেতু চালু করে শুধু কলকাতায় নয়, উত্তর ২৪ পরগনার মানুষও উপকৃত হবেন। শ্যামবাজার, চিৎপুর এবং সিঁথির দিকে ব্রিজ থেকে নামার জন্য সিড়ির ব্যবস্থা রয়েছে। দ্রুত গতিতে কাজ সম্পন্ন করে পুজোর আগে এই ব্রিজ চালু করতে চাই কলকাতা পুরসভা।

বন্ধ করুন