বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > দলের বিবৃতির পরেও নেতৃত্ব নিয়ে নিজের অবস্থানে অনড় তন্ময় ভট্টাচার্য
তন্ময় ভট্টাচার্য। ফাইল ছবি
তন্ময় ভট্টাচার্য। ফাইল ছবি

দলের বিবৃতির পরেও নেতৃত্ব নিয়ে নিজের অবস্থানে অনড় তন্ময় ভট্টাচার্য

  • বলে রাখি, গত ২ মে বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগণনার শেষে রাজ্যজুড়ে বাম প্রার্থীদের ভরাডুবিতে দলীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেন দমদম উত্তর কেন্দ্রের সিপিএম প্রার্থী তন্ময় ভট্টাচার্য।

দলের প্রতিক্রিয়ার পরেও বিধানসভা নির্বাচনে সিপিএমের বিপর্যয় নিয়ে নিজের অবস্থানে অনড় রইলেন তন্ময় ভট্টাচার্য। বুধবার তাঁর বক্তব্য নিয়ে দলীয় মুখপত্রে বিবৃতির পরেও দক্ষিণ দমদমের পরাজিত বামপ্রার্থীর দাবি, হারের দায় নিতে হবে দলের শীর্ষনেতৃত্বকেই। 

তন্ময়বাবুর বক্তব্য থেকে নিজেদের দূরত্ব ঘোষণা করে বুধবার এক বিবৃতি জারি করে সিপিএমের উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সম্পাদকমণ্ডলী। যার অন্যতম সদস্য তন্ময়বাবু নিজে। বিবৃতিতে সিপিএমের উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সম্পাদক মৃণাল চক্রবর্তী বলেন, ‘তন্ময়বাবু টক শোয়ে দল সম্পর্কে যা বলেছেন তা তাঁর ব্যক্তিগত মতাতম।’

এদিন দলের বিবৃতিকে সমর্থন করে তন্ময়বাবু বলেন, ‘আমি প্রথম থেকেই বলেছি এটা আমার ব্যক্তিগত মত। আর জেলা সম্পাদকের বিবৃতি জারির অধিকার রয়েছে। বাম দলে কাউকে শো কজ করতে গেলে তাঁকে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দিয়ে চিঠি দিতে হয়। আমার কাছে কোনও চিঠি আসেনি।’

বলে রাখি, গত ২ মে বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগণনার শেষে রাজ্যজুড়ে বাম প্রার্থীদের ভরাডুবিতে দলীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেন দমদম উত্তর কেন্দ্রের সিপিএম প্রার্থী তন্ময় ভট্টাচার্য। ওই কেন্দ্রের বিদায়ী বিধায়ক তিনি। তন্ময়বাবু বলেন, ‘লোকসভা নির্বাচনে দলকে শূন্য করে কেউ দায় নেয়নি। বিধানসভা নির্বাচনেও দল শূন্য হল। এবারও কেউ দায় নেবে না এটা হতে পারে না। শুধু স্তালিন কপচালে হবে না। এটা স্তালিনের যুগ নয়।’

তন্ময়বাবু আরও অভিযোগ করেন, ‘কয়েকজন পলিটব্যুরো সদস্য দলকে ব্যক্তিগত সম্পত্তির মতো পরিচালনা করছেন।’

 

বন্ধ করুন