বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Jahar Sarkar: জহর সরকারের নির্বাচনী এজেন্ট ছিলাম বলে লজ্জা করছে: তাপস রায়
তাপস রায়।

Jahar Sarkar: জহর সরকারের নির্বাচনী এজেন্ট ছিলাম বলে লজ্জা করছে: তাপস রায়

  • তাপস রায়ের পরামর্শ, ‘উনি তো সম্মান বাড়ানোর জন্য রাজ্যসভার সদস্য হয়েছিলেন। ছেড়ে দিন, কে নিষেধ করেছে? উনি যদি মনে করেন ছেড়ে দেওয়া উচিত, ছেড়ে দিন। আমি একবারও মনে করি না জহর সরকার এসমস্ত কথা বলেছে বলে দলের বিন্দুমাত্র ক্ষতি হয়েছে।

দুর্নীতি নিয়ে দলের বিরুদ্ধে মুখ খুলে এবার তৃণমূল নেতা তাপস রায়ের আক্রমণের মুখে পড়লেন জহর সরকার। বুধবার বিকেলে জহরবাবুকে বেলাগাম আক্রমণ করেন তাপস রায়। বলেন, ওনার নির্বাচনী এজেন্ট ছিলাম বলে আমার লজ্জা করছে।

বুধবার তাপস রায় বলেন, ‘জহর সরকার তো তৃতীয়বার তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পরে দল তাঁকে রাজ্যসভায় মনোনয়ন দিয়েছিল। দায়িত্বজ্ঞানহীন অরাজনৈতিক মন্তব্য। আমি জহর সরকারের নির্বাচনী এজেন্ট ছিলাম বলে লজ্জা হচ্ছে। উনি এসব বলার আগে কি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে একবারও কথা বলেছিলেন’?

জহরবাবুকে তাপস রায়ের পরামর্শ, ‘উনি তো সম্মান বাড়ানোর জন্য রাজ্যসভার সদস্য হয়েছিলেন। ছেড়ে দিন, কে নিষেধ করেছে? উনি যদি মনে করেন ছেড়ে দেওয়া উচিত, ছেড়ে দিন। আমি একবারও মনে করি না জহর সরকার এসমস্ত কথা বলেছে বলে দলের বিন্দুমাত্র ক্ষতি হয়েছে। কারণ দল জহর সরকারদের ওপর নির্ভর করে না। রাজ্যসভায় মনোনয়ন পেশের আগে বাড়ির লোক বা বন্ধুবান্ধবদের সম্মতি নিয়েছিলেন কি’?

গত সোমবার বিকেলে তৃণমূলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে একাধিক বিস্ফোরক মন্তব্য করেন দলেরই রাজ্যসভার সাংসদ জহর সরকার। বলেন, বাড়ি থেকে টাকা উদ্ধারের ছবি টিভিতে দেখে প্রথমে বিশ্বাস করতে পারিনি। দুর্নীতির টাকায় বান্ধবীকে ফ্ল্যাট কিনে দেব এই সভ্যতা বাঙালির নয়। তিনি আরও বলেন, বন্ধুরা বিদ্রুপ করছে। জানতে চাইছে, কী রে তুই কত পেয়েছিস। এরকম লাঞ্ছনা জীবনে সহ্য করিনি। এর পরই তাঁকে লাগাতার আক্রমণ শুরু করে তৃণমূল। জহরবাবু জানিয়েছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বললে সাংসদ পদ ছেড়ে দেব। 

 

বন্ধ করুন