বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‌ফের বিজেপিতে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ বিতর্ক, এবার জড়িয়ে তথাগত, সায়ন্তন
তথাগত রায় (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

‌ফের বিজেপিতে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ বিতর্ক, এবার জড়িয়ে তথাগত, সায়ন্তন

  • রাজ্যের প্রথম সারির বিজেপি নেতাদের না জানিয়ে হোয়াটস অ্যাপ গ্রুপে যুক্ত করার ঘটনা যে নতুন করে বিতর্ক সৃষ্টি করল তা বলার অপেক্ষা রাখে না। শোনা যাচ্ছে, পদ্মশ্রী প্রাপক কাজী মাসুম আখতারকেও নাকি ওই হোয়াটস অ্যাপ গ্রুপে যুক্ত করা হয়েছে। তাতে তিনি যথেষ্টই বিরক্তি প্রকাশ করেছেন।

রাজ্যের বিদ্রোহী বিজেপি নেতারা একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ করেছেন বলে জানা যাচ্ছে। আর সেই হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে কোনও অনুমতি না নিয়েই বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা তথাগত রায় ও সায়ন্তন বসুর মতো নেতাদের যুক্ত করার অভিযোগ উঠেছে। যদিও এই বিষয়ে বিন্দুমাত্র কিছু জানেন না বলেই জানিয়েছেন তাঁরা।

সম্প্রতি রাজ্যের বিদ্রোহী বিজেপি নেতারা বিজেপি বাঁচাও মঞ্চ নামে একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ করেছে। সেখানে রাজ্য নেতৃত্বের প্রতি ক্ষুব্ধ অনেক নেতারাই অংশ নিয়েছেন। সেই হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা তথাগত রায়কে যুক্ত করা হয়েছে। কিন্তু এই বিষয়ে কিছু জানেননা তথাগতবাবু। এই প্রসঙ্গে তিনি জানান, ‘‌বিজেপি বাঁচাও বলে কোনও কিছুর অস্তিত্ব রয়েছে বলে জানি না। আমাকে কেউ জিজ্ঞাসা করেনি। আমার অনুমোদনের কোনও প্রশ্ন নেই। রাজনৈতিক দলগুলিতে এই রকম বাঁচাওয়ের কথা অনেক সময় শোনা যায়। তবে আমার কাছে এরকম কোনও খবর নেই।’‌

 

পাশাপাশি আরেক বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুকেও ওই গ্রুপে যুক্ত করা হয়েছে বলে জানা যায়। সায়ন্তনবাবুও অবশ্য এই বিষয়ে কিছুই জানেন না। এই প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা জানান, ‘‌আমাকে কেউ এই বিষয়ে জানায়নি। এই প্রথম শুনলাম। আমাকে কোনও হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত করেছে বলে জানি না। কোনও নোটিফিকেশনও তো আসেনি। প্রতিদিনই আমাদের এরকম অনেক হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত করা হয়। কিন্তু এরকম কিছু যে হয়েছে, তা তো জানি না।’‌ 

জানা যাচ্ছে, রাজ্যে বিদ্রোহী বিজেপি নেতাদের একাংশ সম্প্রতি মহাজাতি সদনে নাকি একটি সভার আয়োজন করেছে। এরই প্রেক্ষাপটে রাজ্যের প্রথম সারির বিজেপি নেতাদের না জানিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত করার ঘটনা যে নতুন করে বিতর্ক সৃষ্টি করল তা বলার অপেক্ষা রাখে না। শোনা যাচ্ছে, পদ্মশ্রী প্রাপক কাজী মাসুম আখতারকেও নাকি ওই হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত করা হয়েছে। তাতে তিনি যথেষ্টই বিরক্তি প্রকাশ করেছেন। তাঁর মতে, ‘‌আমি বিজেপির সদস্য নই। বিজেপিকে বাঁচানোর ঠিকা আমি নিয়েছি নাকি।’‌

বন্ধ করুন