বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিএসএনএলের সম্পত্তি ফিরিয়ে নেওয়া নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক, ক্ষুব্ধ কর্মীরা

বিএসএনএলের সম্পত্তি ফিরিয়ে নেওয়া নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক, ক্ষুব্ধ কর্মীরা

কলকাতার বিএসএনএল ভবন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

সংস্থার কর্মী-অফিসারদের সংগঠনগুলির যৌথ মঞ্চ এইউএবি-র পক্ষ থেকে এর তীব্র প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।

দেশের রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিকম সংস্থা বিএসএনএল আর্থিক সংকটে পড়ার পরেই বিকল্প আয় বাড়ানোর ওপর জোর দিয়েছিল কেন্দ্র। এখন বিএসএনএলের সম্পত্তি ফিরিয়ে নিতে চায়ছে টেলিকম দফতর। আর তাতেই বিতর্ক তৈরি হয়েছে। সংস্থার কর্মী-অফিসারদের সংগঠনগুলির যৌথ মঞ্চ এইউএবি-র পক্ষ থেকে এর তীব্র প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। এরফলে বিএসএনএল আবার আর্থিক সমস্যার মধ্যে পড়বে আশঙ্কা করছেন কর্মী আধিকারিকদের একাংশ।

বিএসএনএলের আর্থিক দুরবস্থা ঘোঁচাতে সংস্থার বাড়ি ও সম্পত্তি ভাড়া দিয়ে বিকল্প আয় বাড়ানোর উপর জোর দিয়েছিল কেন্দ্র। প্রায় আড়াই বছর আগে এই প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল। আর এখন টেলিকম দফতর সেই জমি ও সম্পত্তি ফিরিয়ে নিতে চাইছে বলে অভিযোগ সংস্থার কর্মী আধিকারিকদের। একইভাবে উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদে সংস্থার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে বিপুল সম্পত্তি ভাড়া দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু, এখন সেই সম্পত্তি ফিরিয়ে নিতে চাইছে টেলিকম দফতর। এর পরেই সেখানে আন্দোলন শুরু করে এইউএবি। যার ফলে সম্পত্তি ফিরিয়ে নেওয়ার প্রক্রিয়া স্থগিত হয়ে যায়।

অন্যদিকে, বিএসএনএল বেসরকারি টেলিকম সংস্থাগুলির তুলনায় পিছিয়ে পড়ার জন্য কেন্দ্রকেই দায়ী করেছেন এই সংগঠন। তাদের বক্তব্য, যেখানে বেসরকারি সংস্থাগুলি ফাইভ-জি নিয়ে কথা ভাবছে তখন ফোর-জি প্রযুক্তি নিয়েই পিছিয়ে রয়েছে বিএসএনএল। এর জন্য কেন্দ্রের অবহেলাকে দায়ী করেছেন এই সংগঠন। তাদের বক্তব্য, নির্দেশিকা প্রত্যাহার করা না পর্যন্ত তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন।

বন্ধ করুন