বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ২৬/১১–র ধাঁচে কলকাতায় জঙ্গি হামলার শঙ্কা, নতুন জেটি তৈরি কলকাতা পুলিশের
কলকাতা পুলিশ। বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা। ফাইল ছবি
কলকাতা পুলিশ। বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা। ফাইল ছবি

২৬/১১–র ধাঁচে কলকাতায় জঙ্গি হামলার শঙ্কা, নতুন জেটি তৈরি কলকাতা পুলিশের

  • সামনেই বর্ষবরণ এবং সাধারণতন্ত্র দিবস। তাই জঙ্গিরা এখানে হামলা চালাতে পারে।

কলকাতাকে এতদিন সেফ করিডর হিসাবে ব্যবহার করে অন্যত্র হামলা চালানোর ছক কষত জঙ্গিরা। এবার মুম্বইয়ের ২৬/১১ হামলার ধাঁচে কলকাতাকেই টার্গেট করল জঙ্গিরা। নদীপথে এসে এখানে নাশকতা করার ছক কষেছে তারা। এই খবর পেয়েই এবার নিরাপত্তা আরও জোরদার করা হচ্ছে। বন্দরের নিরাপত্তা বৃদ্ধির পাশাপাশি গঙ্গায় নিজস্ব নতুন একটি জেটি তৈরি করল কলকাতা পুলিশ। এই জেটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘কলকাতা পুলিশ কমিশনারেট’ জেটি। যার উদ্বোধন করেন নগরপাল সৌমেন মিত্র।

পুলিশ সূত্রে খবর, এবার কলকাতায় জঙ্গি হামলা হতে পারে। নানা জঙ্গি এবং অপরাধী ধরা পড়ছে। সেখান থেকেই এমন খবর মিলেছে। তাই নদীপথে বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা। সামনেই বর্ষবরণ এবং সাধারণতন্ত্র দিবস। তাই জঙ্গিরা এখানে হামলা চালাতে পারে। কলকাতার গঙ্গায় নজরদারির দায়িত্ব জলপুলিশ বা কলকাতা পুলিশের ‘রিভার ট্রাফিক’ বিভাগের উপর। আউট্রাম ঘাটের কাছে রয়েছে জলপুলিশের নিজস্ব একটি জেটি। সেখান থেকেই মনিটরিং করা হবে।

লালবাজার সূত্রে খবর, নদীপথে গঙ্গার ঘাটে এসে হামলা চালাতে পারে জঙ্গিরা। এমন একটা আশঙ্কা করা হচ্ছে। কারণ গোপন সূত্রে এইরকম খবর মিলেছে। তাই চারিদিকে নিরাপত্তা বেষ্টনি করা হয়েছে। তক্তাঘাটের কাছে একটি জেটি অব্যবহৃত হয়ে পড়েছিল। সেটি বন্দর কর্তৃপক্ষর কাছ থেকে ব্যবহার করার জন্য অনুমতি নেয় কলকাতা পুলিশ। তারপর সেটিকে ঠিক করে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে।

কোন পথে আসতে পারে জঙ্গিরা?‌ কলকাতা পুলিশ সূত্রে খবর, বাংলাদেশ থেকে সুন্দরবন হয়ে জঙ্গিরা নদীপথে কলকাতায় পাড়ি দিতে পারে। গোয়েন্দা রিপোর্টেও এই পথের কথা বলা হয়েছে। তাই প্রত্যেকটি ঘাটে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। দিন–রাত সেখানে মোতায়েন থাকছে সশস্ত্র পুলিশ। এই নতুন জেটি থেকে সেই নজরদারি অনেকটাই সহজ হবে।

বন্ধ করুন