বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > TET: সাত বছর পরে নম্বর জানতে পারবেন টেট উত্তীর্ণরা, এতদিন কেন সময় লাগল?

TET: সাত বছর পরে নম্বর জানতে পারবেন টেট উত্তীর্ণরা, এতদিন কেন সময় লাগল?

সাত বছর পরে নম্বর জানতে পারবেন টেট উত্তীর্ণরা (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস)

অবশেষে আদালতের নির্দেশে নম্বর প্রকাশ করতে পারে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। ২০১৭এর নম্বরটা এদিন প্রকাশিত হতে পারে।

দীর্ঘ সাত সাতটা বছর কেটে গিয়েছে। পরীক্ষা দেওয়ার সাত বছর পরেও নম্বর জানতে পারবেন টেট উত্তীর্ণরা। ২০১৪ সালে পরীক্ষা দিয়েছিলেন। কিন্তু কত নম্বর তারা পেয়েছিলেন সেব্যাপারে তারা কিছুই জানতেন না। সোমবারই তাঁদের নম্বর জানানো হবে বলে খবর। এর সঙ্গেই ২০১৭ সালের টেট পরীক্ষার্থীরাও নম্বর জানতে পারবেন। এমনটাই আশ্বাস দিয়েছেন খোদ পর্ষদ সভাপতি গৌতম পাল। এদিকে সভাপতির এই আশ্বাস শুনে অনেকেই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন। ২০১৭এর নম্বর এদিনই প্রকাশিত হতে পারে। ২০১৪ সালেরটা প্রকাশ হতে দিন দুয়েক সময় লাগতে পারে।

পর্ষদ সূত্রে খবর, ২০১৪ ও ২০১৭ সালে টেট পরীক্ষার্থীরা এবার কে কত পেয়েছিলেন তা জানতে পারবেন। আদালতের নির্দেশে ১১ হাজার পদে নিয়োগের কথা বলা হয়েছে। আগামী ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত এনিয়ে আবেদন নেওয়া হবে। তার আগেই নম্বরের তালিকা প্রকাশ করতে চাইছে পর্ষদ। এক্ষেত্রে অনেকেটাই স্বস্তি পাবেন টেট উত্তীর্ণরা। অনেকটাই সুবিধা হবে তাঁদের।

২০১৭ সালে টেট পাশ করেছিলেন ৯,৮৯৬জন। ২০১৪ সালে টেট পাশের সংখ্যা ১ লক্ষ ২৫ হাজার।

এদিকে নম্বর জানার জন্য দীর্ঘদিন ধরেই টেট পরীক্ষার্থীরা লড়াই চালাচ্ছেন।নম্বর জানার জন্য তাদের দীর্ঘ লড়াই। নানা মহলে নম্বরের জন্য দাবি জানিয়েছেন তারা। এতদিনে তাদের দাবি পূরণ হওয়ার পথে। কিন্তু শুধু নম্বর বের করার জন্য় কেন সাত বছর সময় লেগে যাচ্ছে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। পাশাপাশি হাইকোর্ট বলতেই নম্বর সামনে চলে আসছে আর এতদিনে নম্বর বের হয়নি তানিয়েও বিষ্মিত অনেকেই।

 

বন্ধ করুন