বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > শহরে বায়ুদূষণ রোধে তৎপর KMC, অক্টোবরের মধ্যে ৫০ হাজার গাছ লাগানোর পরিকল্পনা

শহরে বায়ুদূষণ রোধে তৎপর KMC, অক্টোবরের মধ্যে ৫০ হাজার গাছ লাগানোর পরিকল্পনা

শহরে চারা রোপণ করছে কলকাতা পুরসভা। প্রতীকী ছবি

দেবদারু, অশোক, বকুল, জারুল, মেহগনি এবং নিম প্রভৃতি গাছের চারা রোপন করা হবে কলকাতা জুড়ে। রাস্তার দুই পাশে ছাড়াও কিছু পার্ক এবং খালের পাশে এই সমস্ত গাছ লাগানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুরসভা। এছাড়াও, বেশ কিছু ফল গাছ লাগানোরও পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি বহু সমীক্ষার রিপোর্টে কলকাতায় বায়ু দূষণ নিয়ে উদ্বেগ জনক ছবি ধরা পড়েছে। তাই শহরের দূষণ নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ করল কলকাতা পুরসভা আগামী অক্টোবরের শেষের মধ্যে কলকাতা জুড়ে ৫০ হাজার চারা গাছ রোপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কলকাতা পুরসভা। এরমধ্যে ২৫ হাজার চারা গাছ বিভিন্ন জেলা থেকে কেনা হবে। পুরসভার তরফে জানানো হয়েছে, একটি বড় গাছ বায়ু দূষণ থেকে রক্ষা করে। সেই কারণে এই বৃক্ষরোপণ অভিযান শুরু হয়েছে।

গ্রিন মিশন প্রকল্পে দেবদারু, অশোক, বকুল, জারুল, মেহগনি এবং নিম প্রভৃতি গাছের চারা রোপন করা হবে কলকাতা জুড়ে। রাস্তার দুই পাশে ছাড়াও কিছু পার্ক এবং খালের পাশে এই সমস্ত গাছ লাগানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুরসভা। এছাড়াও, বেশ কিছু ফল গাছ লাগানোরও পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এগুলি মূলত পার্কে এবং খালের পাশের রাস্তায় লাগানো হবে বলে পুরসভার পার্ক বিভাগের একজন আধিকারিক জানিয়েছেন। পুরসভা সূত্রের খবর, যে সমস্ত রাস্তায় যানবাহনের চাপ বেশি কিন্তু গাছের সংখ্যা খুব কম মূলত সেই সমস্ত রাস্তাকেই চারা রোপনের জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউ, এপিসি রায় রোড, সিআইটি রোড (পার্ক সার্কাস), বেলিয়াঘাটা মেইন রোড, এজেসি বোস রোড, রাসবিহারী অ্যাভিনিউ এবং আসুতোষ মুখার্জি রোড।

পার্ক বিভাগের ওই আধিকারিক আরও জানিয়েছেন, সিআইটি রোড (পার্ক সার্কাস) এবং রাসবিহারী অ্যাভিনিউ প্রশস্ত করার জন্য বহু গাছ কাটা পড়েছিল। সেখানে বাঁশ লাগানো লাগানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, ‘যেখানে সবুজের ক্ষতি হয়েছে তা আমাদের পূরণ করতে হবে।’ বহুতল নির্মাণের ফলেও অনেক গাছ কাটা গিয়েছে। তাই এত পরিমাণ গাছ লাগানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। পুরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে, আগে কলকাতার বিভিন্ন পার্কে বিভিন্ন ধরনের দলের গাছ লাগানো হয়েছে। সেখানে পাখির সংখ্যা বেড়েছে।

বন্ধ করুন