বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > যাত্রী আছে, বাসের দেখা নেই, নিয়ম শিথিল হলেও ভোগান্তি কমেনি যাত্রীদের
পরিস্থিতি যেদিকে যাচ্ছে তাতে অতিমারির মধ্যে এই ছবিও হয়তো আগামী দিনে দেখতে হবে বাংলাকে (প্রতীকী ছবি)
পরিস্থিতি যেদিকে যাচ্ছে তাতে অতিমারির মধ্যে এই ছবিও হয়তো আগামী দিনে দেখতে হবে বাংলাকে (প্রতীকী ছবি)

যাত্রী আছে, বাসের দেখা নেই, নিয়ম শিথিল হলেও ভোগান্তি কমেনি যাত্রীদের

  • জ্বালানির তেলের দাম আকাশছোঁয়া। ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে বাস চালালে তেলের খরচও উঠবে না। দাবি বাস মালিকদের

বিধিনিষেধ কিছুটা শিথিল। প্রায় মাস দেড়েক বাসে বৃহস্পতিবার থেকে রাস্তায় বাস নামার কথা। কিন্তু বাস্তব চিত্র তো অন্য় কথা বলছে। যাত্রীদের দাবি, হাতে গোণা কিছু বাস রাস্তায় নেমেছে। এদিকে সেখানে ৫০ শতাংশ যাত্রী বহনের সব নিয়ম মানা সম্ভব হচ্ছে না। অন্যদিকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করার পরেও বাস মিলছে না বলে অভিযোগ। কলকাতা ও শহরতলিতেও একই ছবি। বিভিন্ন বাস স্ট্যান্ডে হা পিত্যেশ করে বাসের জন্য দাঁড়িয়ে থাকছেন যাত্রীরা।

কিন্তু কেন এই পরিস্থিতি। ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে বাস চলাচলের কথা থাকলেও তা চালানো কতটা সম্ভব তা নিয়ে আগেই প্রশ্ন তুলেছিলেন বাস মালিকরা। তাঁদের দাবি জ্বালানির তেলের দাম আকাশছোঁয়া। ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে বাস চালালে তেলের খরচও উঠবে না। এর সঙ্গেই দীর্ঘদিন বাসগুলি বসে থাকার জন্য় যন্ত্রাংশও বিকল হয়ে গিয়েছে। সেই বাস সারাতে গেলেও মোটা টাকার ধাক্কা। সেক্ষেত্রে ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে বাস চালানো যে কার্যত অসম্ভব সেকথা আগাম জানিয়ে দিয়েছিল বেসরকারি বাস মালিক সংগঠন। বাস ভাড়া বৃদ্ধির পক্ষেও মতামত দিয়েছিলেন বাস মালিকদের সংগঠন।

 কিন্তু বর্তমান অতিমারি পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষ এমনিতেই আর্থিক নানা সংকটের মধ্যে পড়েছেন। তার উপর বাস ভাড়া বৃদ্ধি পেলে তাঁদের উপর বাড়তে চাপ পড়তে পারে। তবে বাস ভাড়া বৃদ্ধি নিয়ে রাজ্য সরকারের তরফে কোনও সম্মতি এখনও দেওয়া হয়নি। অন্যদিকে যাত্রী বেশি হলে সংক্রমণের আশঙ্কা।আর বৃহস্পতিবার রাস্তায় দেখা গেল যাত্রী আছেন কিন্তু বাস পর্যাপ্ত নেই। কলকাতার পাশাপাশি জেলাগুলিতেও একই ছবি। গন্তব্যে পৌঁছতে ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হয় যাত্রীদের। তাঁদের দাবি দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করেও বাসের দেখা মিলছে না। 

 

বন্ধ করুন