বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে এটাই শেষ ২১ জুলাই মমতার: দিলীপ ঘোষ
দিলীপ ঘোষ, ফাইল ছবি
দিলীপ ঘোষ, ফাইল ছবি

মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে এটাই শেষ ২১ জুলাই মমতার: দিলীপ ঘোষ

  • দিলীপবাবুর দাবি, ‘রোজ সাধারণ মানুষ ও বিরোধীরা খুন হচ্ছে। এখানে কোনও গণতান্ত্রিক অধিকার নেই।

২১ জুলাইয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভার্চুয়াল ভাষণের আগে তাঁকে তীব্র কটাক্ষে বিদ্ধ করলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। মঙ্গলবার তিনি বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এটাই শেষ ২১ জুলাই।’ একই সঙ্গে দিলীপবাবু বলেন, ‘শহিদদের নিয়ে রাজনীতি করে বিরোধীদের শহিদ করছেন মমতা।’

এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে এটাই শেষ ২১ জুলাই সভা করছেন উনি। আমরা প্রহসন দিবস হিসাবে মানুষের কাছে যাব। বলব, যারা শহিদের রক্তে হেঁটে ক্ষমতায় এসেছেন তাঁরা আজকে বাকিদের শহিদ করে দিচ্ছেন।‘ 

দিলীপবাবুর দাবি, ‘রোজ সাধারণ মানুষ ও বিরোধীরা খুন হচ্ছে। এখানে কোনও গণতান্ত্রিক অধিকার নেই। এটা পরিবর্তন করে দিন। তাহলে জানব গণতন্ত্রের প্রতি, শহিদদের প্রতি সত্যি সত্যিই আপনার শ্রদ্ধা আছে। না হলে শহিদদের নিয়ে রাজনীতি করবেন আর বিরোধীদের শহিদ বানাবেন, দুটো একসঙ্গে হতে পারে না।‘

পলাটা তৃণমূল নেতা অরুপ বিশ্বাস জানিয়েছেন, ‘বাংলার সংস্কৃতি সম্পর্কে কিছু জানে না বিজেপি। বাংলাকে লুঠ করতে এসেছে তারা।’

বলে রাখি, বিজেপির ভার্চুয়াল জনসভাকে কটাক্ষ করলেও করোনা পরিস্থিতির মধ্যে ২১ জুলাই পালন করতে সেই ভার্চুয়াল পথেই হাঁটতে হয়েছে মমতাকে। যার ফলে আগেই মমতাকে আক্রমণ করেছেন দিলীপবাবু। বিজেপির পরিকল্পনা তৃণমূল ‘চুরি করছে’ বলে মন্তব্য করেছিলেন তিনি। এবার একেবারে মসনদ উলটে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি।

 

বন্ধ করুন