দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি
দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

মমতা যে দু'দিকেই খেলছেন এবার জনতা ধরে ফেলেছে, বললেন দিলীপ

  • এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রীর রাজনীতি সাধারণত একটু গভীর হয়। তবে এবার উনি ধরা পড়ে গেছেন।'

মমতা দু’দিকেই খেলছে তা ধরে ফেলেছে লোকে। আর বামেরা তো ২ দিন ধরে রাস্তাতেই বসে আছে। রবিবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে প্রধানমন্ত্রীর কর্মীসূচি সেরে এই ভাষাতেই বিরোধীদের বিঁধলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রীর রাজনীতি সাধারণত একটু গভীর হয়। তবে এবার উনি ধরা পড়ে গেছেন। উনি যে দুদিকেই খেলছেন সেটা লোকে ধরে ফেলেছে।’

এর পরই বামপন্থীদের নিশানা করেন দিলীপবাবু। বলেন, ‘ওরা তো ২ দিন ধরে রাস্তাতেই বসে আছেন। কাউকে একটা ‘গো ব্যাক’ স্লোগান দিতে হত, মোদীকে না পেয়ে তাই দিদিকেই ‘গো ব্যাক’ স্লোগান দিয়ে দিয়েছেন।’ দিলীপবাবুর কটাক্ষ, ‘গান গেয়ে আর ছবি এঁকে বিপ্লব করার দিন শেষ। ঠিক করে পড়াশুনো করুন। তারপর পারলে দেশের জন্য কিছু করুন।’

শনিবার প্রধানমন্ত্রী পৌঁছনোর আগে থেকেই তাঁর কলকাতা সফরের বিরোধিতায় পথে নেমেছে বাম ছাত্র সংগঠনগুলি। ধর্মতলা-সহ শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় ‘গো ব্যাক মোদী’ স্লোগান তুলে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন তাঁরা। পিছিয়ে নেই তৃণমূলও। বামেদের দেখে তাদের ছাত্র সংগঠনও ধর্মতলায় মঞ্চ বেঁধেছে। সেই মঞ্চে শনিবার সন্ধ্যায় হাজির হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার আগে রাজভবনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে একান্ত বৈঠক করেন তিনি। তবে রবিবার তৃণমূলের মঞ্চ ছিল শুনশান। তবে মোদী শহর না-ছাড়া পর্যন্ত টানা বিক্ষোভ দেখিয়ে গিয়েছেন বামেরা।


বন্ধ করুন