বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'বিজেপির বৃদ্ধিতে যাদের অবদান নেই, তারা যেতে পারেন,' মুকুলের নাম নিলেন না দিলীপ
মুকুল রায় ও দিলীপ ঘোষ (ফাইল ছবি)
মুকুল রায় ও দিলীপ ঘোষ (ফাইল ছবি)

'বিজেপির বৃদ্ধিতে যাদের অবদান নেই, তারা যেতে পারেন,' মুকুলের নাম নিলেন না দিলীপ

  • বঙ্গ বিজেপির অন্দরে দিলীপ ঘোষ ও মুকুল রায় বরাবরই পৃথক মেরুতে থাকতেন বলে চর্চা রয়েছে

তখনও তিনি তৃণমূলে যোগ দেননি। তৃণমূল ভবনে বেরনর জন্য বাড়ি থেকে বেরিয়েছেন। কিন্তু তার মধ্যেই মুকুল রায়ের এই অবস্থানকে ঘিরে একেবারে ঝড় ওঠে বিজেপির অন্দরে। আর কার্যত সেই ঝড় আঁচ করেই বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘বিজেপির বৃদ্ধিতে যাঁদের কোনও অবদান নেই, তাঁরা যেতে পারেন।’ তবে এদিন তিনি মুকুল রায় অথবা তৃণমূল থেকে বিজেপিতে আসা কোনও দলবদলুর নাম তিনি নিতে চাননি। তবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, গত লোকসভায় ১৮টি আসন পাওয়ার ক্ষেত্রে, তৃণমূল ছেড়ে একের পর এক নেতা মন্ত্রী বিজেপিতে নিয়ে আসার পেছনে সত্যি কি মুকুল রায়ের অবদান কিছু কম ছিল?

দিলীপ ঘোষ আরও বলেন,'আমাদের অনেক কর্মীই ঘরছাড়া অবস্থায় রয়েছেন। তাঁদের কথা ভাবতে হচ্ছে। কে কোথায় গেলেন তা নিয়ে ভাবার সময় নেই।' সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে একথা বলেই বেরিয়ে যান তিনি। তবে রাজনৈতিক মহলের মতে, মুকুল রায়ের এই অবস্থানকে ঘিরে এদিন যথেষ্ট বিপর্যস্ত গেরুয়া শিবির। তারই ছায়া দেখা যায় দিলীপ ঘোষের মতো পোড়খাওয়া নেতৃত্বের মধ্যেও।

রাজনৈতিক মহলের মতে, মাঝে কয়েকবছরের বিচ্ছেদ। ফের  ঘরের মানুষ ফের ঘরে ফিরছেন। যে দলকে তিনি হাতের তালুর মতো চিনতেন সেই তৃণমূল ছেড়ে একদিন বিজেপিতে ভিড়ে গিয়েছিলেন মুকুল রায়। হয়তো নানা অভিমানে তৃণমূল ছেড়েছিলেন তিনি। কিন্তু বিজেপিতে গিয়ে তিনি কতটা সাবলীল ছিলেন, সেখানে তিনি কতটা গুরুত্ব পেতেন তা নিয়ে চর্চা হয়েছে বার বার। এবারের বিধানসভা নির্বাচনের সময়ও মুকুল রায়কে কার্যত নিষ্ক্রিয় অবস্থায় দেখা গিয়েছিল। তবে শেষ পর্যন্ত কৃষ্ণনগর উত্তরের বিধায়ক মুকুল রায় যোগ দিচ্ছেন তৃণমূলে। একে তো ভোটে ভরাডুবির ধাক্কা। তার সঙ্গে যুক্ত হল মুকুল তৃণমূলে চলে যাওয়ার ধাক্কা। একেবারে বিপর্যস্ত বঙ্গ বিজেপি। 

 

বন্ধ করুন