মঙ্গলবার হাওড়ার বাগনানে আকাশে কালবৈশাখির মেঘ।
মঙ্গলবার হাওড়ার বাগনানে আকাশে কালবৈশাখির মেঘ।

শুক্রবার পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে চলবে কালবৈশাখির দাপট, জানাল হাওয়া অফিস

  • পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, ঝড়-বৃষ্টির সঙ্গে রয়েছে প্রবল বজ্রপাতের সম্ভাবনাও। হতে পারে শিলাবৃষ্টি।

বিহার – উত্তরপ্রদেশের ওপর অবস্থিত লঘুচাপ ক্ষেত্রের জেরে শুক্রবার পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় চলবে ঝড়বৃষ্টি। মঙ্গলবার হাওয়া অফিস থেকে এমনই পূর্বাভাস জারি হয়েছে। সোমবার বিকেল থেকে উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের ওপর দিয়ে বয়ে গিয়েছে একাধিক কালবৈশাখি। বেশ কিছু জায়গা থেকে শিলাবৃষ্টির খবরও মিলেছে। যার ফলে চাষের ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে।

পূর্বাভাস অনুসারে, বিহার – উত্তর প্রদেশের ওপর অবস্থান করছে একটি লঘুচাপ এলাকা। যার ফলে বঙ্গোপসাগর থেকে ঢুকতে প্রচুর জলীয় বাস্প। এই জেরেই বিভিন্ন জায়গায় তৈরি হচ্ছে মেঘকোষ। যা থেকে তৈরি হচ্ছে কালবৈশাখি ঝড়। পূর্ব – দক্ষিণপূর্ব দিকে এগিয়ে এই ঝড় আঘাত হানছে একের পর এক জেলায়।

পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, ঝড়-বৃষ্টির সঙ্গে রয়েছে প্রবল বজ্রপাতের সম্ভাবনাও। হতে পারে শিলাবৃষ্টি।

আবহাওয়া দফতর থেকে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার সকাল ৮.৩০ মিনিট পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় দমদম বিমানবন্দরে ৪৪.৪ মিমি বৃষ্টি হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে সব থেকে বেশি বৃষ্টি হয়েছে বারাকপুরে। সেখানে ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টিপাতের পরিমান ৫৭ মিমি। এছাড়া বর্ধমানে ৪৮.৮ মিমি, বাঁকুড়ায় ৪২.৪ মিমি, পানাগড়ে ২৮.৪ মিমি, জলপাইগুড়িতে ২১.৮ মিমি ও বিধাননগরে ১৫.৪ মিমি বৃষ্টিপাত হয়েছে।

সোমবার রাতের পর মঙ্গলবার সকালেও কলকাতার ওপর দিয়ে বয়ে যায় কালবৈশাখি। ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ ছিল ৫৬ কিলেমিটার। ঝড়ে গাছ পড়ে কলকাতা লাগোয়া নিউটাউনে এক ব্যক্তির মৃত্যুর খবর মিলেছে।


বন্ধ করুন