বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > তিলজলা শুটআউট কাণ্ডের মূল অভিযুক্ত–সহ তিন গ্রেফতার, বিহার থেকে পাকড়াও
জিবোধ–সহ মোট তিনজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তিলজলা শুটআউট কাণ্ডের মূল অভিযুক্ত–সহ তিন গ্রেফতার, বিহার থেকে পাকড়াও

  • এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত মোট ধৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ৬।

একসপ্তাহের মধ্যে তিলজলা শুটআউটের কিনারা করল কলকাতা পুলিশ। এই ঘটনার মূল অভিযুক্ত–সহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরা বিহারে গা–ঢাকা দিয়েছিল। কিন্তু তারপরও নিজেদের বাঁচাতে পারল না। তিলজলা গুলি কাণ্ডের মূল অভিযুক্ত জিবোধ রাই। জিবোধ–সহ মোট তিনজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বাকি দুই ধৃতের নাম প্রকাশ ও বিনোদ। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত মোট ধৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ৬।

ঠিক কী ঘটেছিল তিলজলায়?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যে থেকে তিলজলার তাড়িখানা রোড এলাকায় অশান্তি চলছিল। আর শনিবার সকালে রাজু রায় নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা বাজার থেকে ফেরার সময় জিবোধ রাই এবং তার ভাইরা পথ আটকায়। সেখানেই বচসা শুরু হয় এবং রাজুর বাবা ডাবলু রায় চলে আসেন। তখন তাঁকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কোপ মারা হয়। আর তিন রাউন্ড গুলি চলে। তাতেই রাজু রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পড়েন। রাজুর বাবাও জখম হন।

কিভাবে ধরা পড়ল মূল অভিযুক্ত?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, তিলজলা কাণ্ডে প্রথমে কাউকে ধরা যায়নি। কিন্তু রাতভর তল্লাশি চালিয়ে কিছু সূত্র মেলে। সেই সূত্র ধরে তিলজলা থানার পুলিশ এবং লালবাজারের গুন্ডাদমন শাখার আধিকারিকরা রবিবার কাঁচরাপাড়া থেকে অভিযুক্ত জিবোধের ভাই রিবোধকে পাকড়াও করে। আর তারপরে রিবোধের মা এবং দিদিকেও গ্রেফতার করে পুলিশ। এদের জেরা করেই জানা যায় জিবোধ বিহারে গা–ঢাকা দিয়েছে।

এরপর সেখানে পৌঁছয় কলকাতা পুলিশ। বিহার পুলিশের সঙ্গে হাত মিলিয়ে অপারেশনে নামা হয়। তবে তা ঘূণাক্ষরেও টের পায়নি জিবোধ এবং সাঙ্গপাঙ্গরা। এরপর খুব কাছাকাছি গিয়ে ঘিরে ফেলা হয় জীবোধদের। যেখান থেকে পালাতে পারেনি তারা। গুণ্ডাদমন শাখা বিহার থেকে তাদের ধরে নিয়ে আসে কলকাতায়। জিবোধ, প্রকাশ, বিনোদ সবাই এখন পুলিশের ডেরায়।

বন্ধ করুন