বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > করোনার বলি বিধাননগরের কাউন্সিলর সুভাষ বসু, শোকজ্ঞাপন মুখ্যমন্ত্রীর
রয়েছে মৃত্যুভয়, তবু কোভিড সচেতনতায় প্রথম সারি থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন বাংলার কয়েকজন নেতা। প্রয়াত তৃণমূল কাউন্সিলর সুভাষ বসু ছিলেন তাঁদের অন্যতম।
রয়েছে মৃত্যুভয়, তবু কোভিড সচেতনতায় প্রথম সারি থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন বাংলার কয়েকজন নেতা। প্রয়াত তৃণমূল কাউন্সিলর সুভাষ বসু ছিলেন তাঁদের অন্যতম।

করোনার বলি বিধাননগরের কাউন্সিলর সুভাষ বসু, শোকজ্ঞাপন মুখ্যমন্ত্রীর

  • বুধবার সকালে স্থানীয় বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হল বিধাননগরের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর সুভাষ বসুর।

সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে মানুষকে সচেতন করতে গিয়ে ফের করোনায় প্রাণ হারালেন রাজনৈতিক নেতা। বুধবার সকালে স্থানীয় এক বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হল বিধাননগরের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর সুভাষ বসুর। 

৬৩ বছর বয়েসি এই লড়াকু কাউন্সিলরের মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ রাজ্য ও রাজনৈতিক মহল। তাঁর মৃত্যুতে টুইট করে শোকজ্ঞাপন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সমবেদনা জানিয়েছেন প্রয়াত কাউন্সিলরের পরিবারকে। ‘অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে গেল’, টুইটে লিখেছেন রাজ্যের পুরমন্ত্রী ও কলকাতা পুরসভার প্রধান প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম।

জানা গিয়েছে, লকডাউন চলাকালীন নিজের ওয়ার্ডে বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে করোনা নিয়ে জনসাধারণকে সচেতন করেন সুভাষবাবু। গরিব মানুষের হাতে তুলে দিয়েছেন খাবার ও নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী। এরই মধ্যে ২৪ জুলাই হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। 

জ্বর, শ্বাসকষ্ট–সহ একাধিক উপসর্গ নিয়ে স্থানীয় এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। করোনা পরীক্ষা করলে রিপোর্ট পজিটিভ আসে। সময় নষ্ট না করে দ্রুত তাঁর চিকিৎসা শুরু করা হয়। প্রথম দিকে চিকিৎসায় ভাল সাড়াও দিচ্ছিলেন সুভাষবাবু। কিন্তু শেষরক্ষা হল না। রেখে গেলেন স্ত্রী ও সন্তানকে। জানা গিয়েছে, সম্প্রতি তাঁরাও করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। 

বন্ধ করুন