ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

রাজ্যসভা নির্বাচনে মনোনয়ন পেশ করলেন তৃণমূলের দীনেশ ও সুব্রত বক্সি

  • নেশ ত্রিবেদী ও সুব্রত বক্সি ছাড়াও নাম রয়েছে মৌসম বেনজির নুর ও অর্পিতা ঘোষের। বাকি তৃণমূলপ্রার্থী বৃহস্পতিবার মনোনয়ন পেশ করবেন বলে দলীয় সূত্রের খবর।

রাজ্যসভা নির্বাচনে মনোনয়ন পেশ করলেন তৃণমূলের ২ প্রার্থী। বুধবার পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার সচিবের কাছে মনোনয়ন পেশ করেন দীনেশ ত্রিবেদী ও সুব্রত বক্সি। সেসময় তাঁদের সঙ্গে হাজির ছিলেন মন্ত্রী তাপস রায় ও অরুপ বিশ্বাস। ১৩ মার্চ রাজ্যসভা নির্বাচনে মনোনয়ন পেশের শেষ দিন। ২৬ মার্চ ভোটগ্রহণ হওয়ার কথা। তবে পশ্চিমবঙ্গে খালি হওয়া রাজ্যসভার ৫টি আসনেই বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় জিততে চলেছেন প্রার্থীরা। এদের মধ্যে ৪ জন তৃণমূলের প্রার্থী। অন্যজন বাম-কংগ্রেস জোটপ্রার্থী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য।

রাজ্যসভা নির্বাচনে তৃণমূলের পক্ষ থেকে ৪ জন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টুইটে চার প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেন তিনি। তার মধ্যে দীনেশ ত্রিবেদী ও সুব্রত বক্সি ছাড়াও নাম রয়েছে মৌসম বেনজির নুর ও অর্পিতা ঘোষের। বাকি তৃণমূলপ্রার্থী বৃহস্পতিবার মনোনয়ন পেশ করবেন বলে দলীয় সূত্রের খবর। আগামিকাল মনোনয়ন পেশ করবেন বিকাশবাবুও।

তৃণমূলের ৪ প্রার্থীর সংসদীয় রাজনীতির অভিজ্ঞতা থাকলেও বাম প্রার্থী বিকাশবাবু একেবারেই আনকোরা। তৃণমূলের দীনেশ ত্রিবেদী বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের ২ বারের সাংসদ ছিলেন। ২০১৯-এর ভোটে অর্জুন সিংয়ের কাছে হেরেছেন তিনি। সুব্রত বক্সি গত লোকসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা না করলেও কলকাতা দক্ষিণ কেন্দ্রের ২ বারের সাংসদ তিনি। মৌসম বেনজির নুর মালদা উত্তরের ২ বারের সাংসদ। গত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির খগেন মুর্মুর কাছে হেরেছেন তিনি। বালুরঘাট কেন্দ্র থেকে ২০১৪ সালে জিতে লোকসভায় গিয়েছিলেন অর্পিতা ঘোষ। এবার বিজেপির সুকান্ত মজুমদারের কাছে হেরেছেন তিনি।

ওদিকে বাম – কংগ্রেস জোটপ্রার্থী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য ২০১৯-এর নির্বাচনে যাদবপুর কেন্দ্র থেকে দাঁড়িয়েছিলেন। তৃণমূলের মিমি চক্রবর্তীর কাছে হেরেছেন তিনি।



বন্ধ করুন