বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌আমরা সর্বদা আপনাদের পাশে আছি’‌, শিক্ষক–শিক্ষিকাদের খোলা চিঠি ব্রাত্যর
ব্রাত্য বসু। ফাইল ছবি
ব্রাত্য বসু। ফাইল ছবি

‘‌আমরা সর্বদা আপনাদের পাশে আছি’‌, শিক্ষক–শিক্ষিকাদের খোলা চিঠি ব্রাত্যর

  • প্রধান শিক্ষক শিক্ষিকাদের বলা হয়েছে সেই চিঠির কপি দিয়ে দেওয়ার জন্য।

শিক্ষিকাদের বিষপানের ঘটনায় ঝড় উঠেছিল। বিজেপির ক্যাডার বলায় তাতে ঘৃতাহুতি পড়েছিল। শিক্ষক দিবসে তিনি শংসাপত্র পেয়েছিলেন ‘‌যোগ্য মন্ত্রী’‌র। এইসবের মধ্যেই এবার কলম ধরলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। লিখলেন চিঠি। যে চিঠির ছত্রে ছত্রে রয়েছে রাজ্যের শিক্ষক–শিক্ষিকাদের পাশে দাঁড়ানোর বার্তা। শিক্ষক দিবসের দিন এই চিঠি লেখা হলেও রাজ্যের শিক্ষক–শিক্ষিকাদের মঙ্গলবার সেই চিঠির কপি দেওয়ার নির্দেশ দিল রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর। প্রধান শিক্ষক শিক্ষিকাদের বলা হয়েছে সেই চিঠির কপি দিয়ে দেওয়ার জন্য। সেই চিঠির কপি সব শিক্ষক–শিক্ষিকাদের হাতে পৌঁছল কিনা তা নিয়ে একটি রিপোর্ট দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

এই চিঠি পাওয়ার পর অনেক শিক্ষক–শিক্ষিকারই মত, বেটার লেট দ্যান নেভার। তবু তো চিঠি মিলল। না পাওয়ার থেকে বিলম্বিত প্রাপ্তিই যথেষ্ট। শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর লেখা চিঠিতে শিক্ষকদের বদলির জন্য উৎসশ্রী পোর্টালের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এমনকী রাজ্যের শিক্ষক–শিক্ষিকাদের পাশে যে রয়েছে রাজ্য সরকার সে কথা মনে করিয়ে দেওয়া হয়েছে চিঠিতে।

ঠিক কী লিখেছেন তিনি?‌ শিক্ষা মন্ত্রী ব্রাত্য বসু তাঁর চিঠিতে লিখেছেন, ‘‌আপনারা জানেন যে পশ্চিমবঙ্গ সরকার গত ১০ বছর ধরে শিক্ষাক্ষেত্রে ক্রমবর্ধমান উন্নয়ন সাধন করেছে। ২৭০০ বিদ্যালয় মাধ্যমিক স্তর থেকে উচ্চমাধ্যমিক স্তরে উন্নীত হয়েছে। উচ্চমাধ্যমিক স্তরের ড্রপ আউট রেড ২০১১ সালের তুলনায় ১৭.৪৮ শতাংশ থেকে কমে ৭.৪% হয়েছে। ২০১১ সালের পর থেকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীর প্রতিমাসে নিয়মিত বেতন–ভাতা নিশ্চিত করা হয়েছে। চাকুরী সংক্রান্ত তথ্যাবলী কম্পিউটারাইজ করা হয়েছে। এই পোর্টালের মাধ্যমে তারা চাকুরী সংক্রান্ত বিভিন্ন পরিষেবা অনলাইনে পাচ্ছেন। শিক্ষক-শিক্ষিকাদের অনলাইন পেনশন পদ্ধতি চালু করা হয়েছে। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী নিরন্তর অনুপ্রেরণা ও উপদেশ গত ৩১ জুলাই আপনাদের বদলির সুযোগ–সুবিধা প্রদানের জন্য অনলাইন বদলির পোর্টাল উৎসশ্রী চালু করা হয়েছে। আজ শিক্ষক দিবসের পূণ্য দিনে আপনাদের সকলের জন্য উৎসর্গকৃত এই পদক্ষেপকে সাফল্যমন্ডিত করার জন্য আপনাদের সকলের সাহায্য সহযোগিতা কামনা করছি। আমরা সর্বদা আপনাদের পাশে আছি।’‌

এখন প্রশ্ন উঠছে, এই চিঠি তিনি লিখলেন কেন?‌ শিক্ষকমহলের একাংশের দাবি, শিক্ষিকাদের বিষপানের ঘটনা লঘু করতেই এই চিঠি। আবার একাংশের বক্তব্য, শিক্ষামন্ত্রী হওয়ার পর এভাবেই শিক্ষকদের সম্মান দিলেন তিনি। এটা অভিনব উদ্যোগ। ইতিমধ্যেই উৎসশ্রী পোর্টালের মাধ্যমে দুই হাজারেরও বেশি শিক্ষক বদলির সুযোগ পেয়েছেন। আরও প্রায় ৫০০০ শিক্ষক–শিক্ষিকাদের বদলির আবেদন বিবেচনাধীন রয়েছে স্কুল সার্ভিস কমিশনের কাছে। এই অনলাইন পোর্টালের মাধ্যমেই রাজ্য শিক্ষক–শিক্ষিকাদের পাশে থাকার বার্তা দিলেন স্বয়ং শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু।

বন্ধ করুন