বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > তলব সত্ত্বেও ED আধিকারকদের সঙ্গে আজ দেখা করবেন না অভিষেক পত্নী রুজিরা
রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি
রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

তলব সত্ত্বেও ED আধিকারকদের সঙ্গে আজ দেখা করবেন না অভিষেক পত্নী রুজিরা

  • অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর স্ত্রী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দিল্লিতে ইডি’র তদন্তকারী আধিকারিকের সামনে হাজিরা দিতে নোটিস পাঠানো হয়েছিল গত ২৮ অগস্ট।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর স্ত্রী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দিল্লিতে ইডি’র তদন্তকারী আধিকারিকের সামনে হাজিরা দিতে নোটিস পাঠানো হয়েছিল গত ২৮ অগস্ট। তবে জানা যাচ্ছে অভিষেক পত্নী রুজিরা আজ ইডি আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করবেন না। ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের নথি সঙ্গে নিয়ে যেতে বলা হয়েছে তাঁকে। ইডিকে একটি চিঠি লিখে রুজিরা আবেদন জানান যাতে কলকাতায় তাঁর বাড়িতে এসে জিজ্ঞাসাবাদ করা হোক। করোনা আবহে তিনি দিল্লি যেতে চান না। কলকাতায় ইডির অফিস রয়েছে উল্লেখ করে রুজিরা এই আবেদন জানান।

১ সেপ্টেম্বর অভিষেকের স্ত্রী এবং ৬ সেপ্টেম্বর স্বয়ং অভিষেককে দিল্লিতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকেছে ইডি। সেই নিয়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসের ভার্চুয়াল সভা থেকে অমিত শাহের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় সংস্থাকে ব্যবহার করে বিধানসভা নির্বাচনে হারের প্রতিশোধ নেওয়ার অভিযোগ করেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

কয়লা পাচার কাণ্ড নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে সরগরম রাজ্যের রাজনীতি। এই নিয়ে বরাবর বিরোধীরা কাঠগড়ায় তুলেছে তৃণমূল কংগ্রেসকে। ভোটের আগে অভিষেকের বাড়িতে সিবিআই পৌঁছে যায়। তাঁর স্ত্রীকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তাঁর ব্যাঙ্কের নথিও খতিয়ে দেখা হবে বলে জানা গিয়েছিল সেই সময়। তা নিয়ে রীতিমতো হইচই পড়ে গিয়েছিল রাজ্য রাজনীতিতে।

তৃণমূল কংগ্রেস বিজেপির বিরুদ্ধে প্রতিহিংসার অভিযোগ তুলেছিল সেই সময়। কেন্দ্রীয় সংস্থাকে দিয়ে হেনস্তা করার অভিযোগ তোলা হয়েছিল মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের দলের তরফে। ভোটের ময়দানেও যুযুধান দুই পক্ষ এই নিয়ে একে অপরের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন। ভোট পেরিয়ে যাওয়ার পর ফের সামনে এল কয়লা পাচার ইস্যু।

বন্ধ করুন