বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'নিজেকে বিজেপির থেকে সুরক্ষিত চিহ্নিত করুন',সোশ্যাল মিডিয়ায় নয়া কৌশল তৃণমূলের
'নিজেকে বিজেপির থেকে সুরক্ষিত চিহ্নিত করুন',সোশ্যাল মিডিয়ায় নয়া কৌশল তৃণমূলের (ছবি সৌজন্য স্ক্রিনগ্র্যাব)
'নিজেকে বিজেপির থেকে সুরক্ষিত চিহ্নিত করুন',সোশ্যাল মিডিয়ায় নয়া কৌশল তৃণমূলের (ছবি সৌজন্য স্ক্রিনগ্র্যাব)

'নিজেকে বিজেপির থেকে সুরক্ষিত চিহ্নিত করুন',সোশ্যাল মিডিয়ায় নয়া কৌশল তৃণমূলের

রাজ্য–রাজনীতিতে তৃণমূলকে কোণঠাসা করতে নানা পরিকল্পনা, স্লোগান তৈরি করেছে বিজেপি। কিন্তু ইদানিং দেখা যাচ্ছে পদ্মে ভাঙন ধরেছে এবং তাঁরা ঘাসফুলে আশ্রয় নিচ্ছেন। অনেকেই ভুল করে শিবির বদলে ছিলেন।

রাজ্য–রাজনীতিতে তৃণমূল কংগ্রেসকে কোণঠাসা করতে নানা পরিকল্পনা, স্লোগান তৈরি করেছে বিজেপি। কিন্তু ইদানিং দেখা যাচ্ছে, পদ্মে ভাঙন ধরেছে এবং তাঁরা ঘাসফুলে আশ্রয় নিচ্ছেন। অনেকের দাবি, তাঁরা ভুল করে শিবির বদলে ছিলেন। সেই ভুল বুঝতে পেরে ফিরে আসছেন। এবার এই পরিস্থিতিতে তৃণমূল দিল মোক্ষম দাওয়াই। সম্প্রতি বিজেপিকে অতিমারী বলে স্লোগান তুলেছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর সেই স্লোগানকে সামনে রেখে এবার বিজেপিকে বিপর্যয়ের তকমা দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নতুন প্রচার শুরু করল রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস - 'নিজেকে বিজেপির থেকে সুরক্ষিত চিহ্নিত করুন' (Mark Yourself Safe from BJP)। যার বিকল্প এখনও খুঁজে পায়নি গেরুয়া শিবির।

কিন্তু নয়া প্রচারের কৌশলটি কী?‌ জানা গিয়েছে, ফেসবুক যেভাবে জানতে চায় কোথায় কতজন সুস্থ আছেন, নিরাপদে আছেন তা চিহ্নিত করে জানাতে। একেবারে সেই পদ্ধতিতে আনুষ্ঠানিক স্লোগান—নিজেকে বিজেপি’‌র থেকে সুরক্ষিত চিহ্নিত করুন। এই কর্মসূচিতে রেজিস্টার করিয়ে প্রাক-ভোট জনমত তৈরির কাজটা শুরু করে দিয়েছে তৃণমূল। দায়িত্বে সেই ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোরের দল আইপ্যাক। এখান থেকে যে রিপোর্ট উঠে আসবে তাতেই ঠিক হবে পরবর্তী রণকৌশল।

এই নয়া ধাঁচের প্রচার কৌশলে সামনে রাখা হয়েছে পরিযায়ী শ্রমিক, দলিত নিগ্রহ, দাঙ্গার মতো ইস্যুগুলিকে। দলের অন্দরের খবর, এতে দু’টি লাভ হবে। এক, বিজেপি বিরোধী মত জানা যাবে। দুই, কোথাও কেউ বিজেপি’র হাতে অত্যাচারিত কিনা, সেটাও সামনে আসবে। আবার সেই ঘটনা মানুষও জানতে পারবে। ‘বাংলার গর্ব মমতা’, ‘দিদিকে বলো’ এসব নানা পেজে এই ক্যাম্পেন চালানো হচ্ছে।

উল্লেখ্য, বছর ঘুরলেই বিধানসভা ভোট। তার দামামা ইতিমধ্যে বেজে গিয়েছে। বিজেপি বা তৃণমূল উভয়েই নানা কর্মসূচি নিচ্ছে। করোনাভাইরাস, দুর্গাপুজোর মত ইস্যুও বাদ যাচ্ছে না সেই পর্বে। বিরোধী দল থেকে গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পালাও চলছে। তার মধ্যেই এই ধরনের নতুন সোশ্যাল মিডিয়া লড়াই শুরু করে দিল শাসকদল। তাতে আপাতত বিরোধী শিবিরকাত বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

বন্ধ করুন