বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Firhad Hakim: ‘‌খারাপ লাগছে, শুভেন্দু নামটা পাল্টাতে হবে’‌, এবার সরাসরি আক্রমণ করলেন ফিরহাদ

Firhad Hakim: ‘‌খারাপ লাগছে, শুভেন্দু নামটা পাল্টাতে হবে’‌, এবার সরাসরি আক্রমণ করলেন ফিরহাদ

মেয়র ফিরহাদ হাকিম। (নিজস্ব চিত্র)

অভিযোগ উঠেছে, পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদ এবং ঘাটাল পুরসভা এলাকার কাজে ভুয়ো নথি পেশ করে তাঁর সংস্থার নামে ৮৬ লক্ষ ২৯ হাজার টাকার ক্রেডেনসিয়াল তৈরি করেছেন এই সত্যব্রত দাস। এই মামলারই তদন্তে ১২ সদস্যের সিট গঠন করে জেলা পুলিশ। যার জেরে প্রাক্তন পুরপ্রধান শ‍্যামল আদকের বিরুদ্ধে আগেই অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

রাজ্যের পুলিশকে নেতার পা ধরাবেন বলে হুঙ্কার ছেড়েছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। কারণ সেই নেতাকে দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেফতার করেছে জেলা পুলিশ। আর তাতেই তিনি তেলেবেগুনে জ্বলে উঠেছেন। সম্প্রতি পূর্ব মেদিনীপুর জেলার অন্তর্গত হলদিয়া পুরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর সত্যব্রত দাসের বিরুদ্ধে আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ করেছিলেন সুতাহাটার শিক্ষক কমলেশ চক্রবর্তী। সুতাহাটা থানার পুলিশ গ্রেফতার করে সত্যব্রত দাসকে। গ্রেফতার করে সত্যব্রতকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ তুলেছেন শুভেন্দু। আর শুভেন্দু অধিকারীর এই হুমকির বিরুদ্ধে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ শানালেন ফিরহাদ হাকিম।

ঠিক কী বলেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী?‌ সত্যব্রত দাসের গ্রেফতারের পরই পুলিশের বিরুদ্ধে কুরুচিকর ভাষায় আক্রমণ করেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি বলেন, ‘শুনে রাখুন পুলিশ বাবারা। আমি কাউকে সমর্থন করছি না। ‌যে হাত দিয়ে সত্যব্রত দাসকে চড় মেরেছেন। সেই দুটি হাত দিয়ে সত্যব্রত দাসের পা ধরাতে যদি না পারি, তাহলে আমার নাম শুভেন্দু অধিকারী নয়। একথা বলে রাখলাম।’‌

ঠিক কী বলেছেন ফিরহাদ হাকিম?‌ এবার শুভেন্দুর মন্তব্যেরই পাল্টা দিতে গিয়ে ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘‌অত্যন্ত দুঃখের যে বাবা যে নাম রেখেছে সেই নাম পাল্টাতে হবে‌। খারাপ লাগছে। শুভেন্দুর নামটা আমাদের কাছে পরিচিত। শুভেন্দু নামটা আমরা অনেকদিন ধরে জানি। আবার নতুন নাম হলে সেই নামে ডাকতে হবে‌‌। কারণ সেই নাম পাল্টাতে হবে‌।’‌

উল্লেখ্য, শুভেন্দু অধিকারীর অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ এই সত্যব্রত দাস। সেটা এভাবেই তিনি নিজের বক্তব্য থেকে প্রমাণ দিলেন বলে মনে করা হচ্ছে। তাঁর দাবি, কমলেশ চক্রবর্তী নামের এক ব্যক্তির মিথ্যা অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ জনপ্রিয়, পরোপকারী প্রাক্তন কাউন্সিলর সত্যব্রত দাসকে গ্রেফতার করেছে। আর অভিযোগ উঠেছে, পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদ এবং ঘাটাল পুরসভা এলাকার কাজে ভুয়ো নথি পেশ করে তাঁর সংস্থার নামে ৮৬ লক্ষ ২৯ হাজার টাকার ক্রেডেনসিয়াল তৈরি করেছেন এই সত্যব্রত দাস। এই মামলারই তদন্তে ১২ সদস্যের সিট গঠন করে জেলা পুলিশ। যার জেরে প্রাক্তন পুরপ্রধান শ‍্যামল আদকের বিরুদ্ধে আগেই অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

মেয়ের কোলে ছেলে, অনীক পুত্র আদবান-এর মুখে ভাত, দেখুন অন্দরের ছবি Water Drinking Problems: প্রয়োজনের চেয়ে বেশি জল খেলে এইসব ক্ষতি হয়, আজ নিজেই জেনে নিন পুকুরের নীচে পা দিতেই…, বিহারে ট্রাক্টর দুর্ঘটনায় হাড়হিম অভিজ্ঞতা উদ্ধারকারীদের EPL 2023 (Bournemouth vs Manchester City) Live Updates: ‘স্বামী হিসাবে আমার খামতি কোথায়?’ ডিভোর্সের পর কিরণকে প্রশ্ন আমিরের, কী জবাব দেন চোট সারিয়ে ইস্টবেঙ্গলে ফিরছেন অজি ডিফেন্ডার, বিদেশির কোটা পূরণ, খেলবেন কী ভাবে? উচ্চমাধ্যমিকে সাংবাদিকতা পরীক্ষার প্রশ্ন কেমন হল? কঠিন হয়েছে? জানালেন শিক্ষক ১লা মার্চই বাংলায় ১০০ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী, কমিশনের নজরে সন্দেশখালিও জোর করে বিয়ে, উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার মধ্যেই আত্মঘাতী আলিপুরদুয়ারের ছাত্রী ঘূর্ণাবর্ত, পশ্চিমী ঝঞ্ঝার দাপট! বৃষ্টি বহু রাজ্যে, বাংলায় রবিবারও কি বর্ষণ?

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.