বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌মুখ্যমন্ত্রীর আশীর্বাদ নিয়ে নতুন পথ চলা শুরু করলাম’‌, জানালেন মদন মিত্র
তৃণমূল নেতা মদন মিত্র। ফাইল ছবি
তৃণমূল নেতা মদন মিত্র। ফাইল ছবি

‘‌মুখ্যমন্ত্রীর আশীর্বাদ নিয়ে নতুন পথ চলা শুরু করলাম’‌, জানালেন মদন মিত্র

  • শান্তিপুরের মঞ্চে দাঁড়িয়ে জীবনে সব প্রাপ্তির কথা ঘোষণা করার পরই তাঁকে এই পদ দেওয়া হয়

একদিন আগেই তিনি বলেছিলেন, আমার আর চাওয়া–পাওয়ার কিছু রইল না। সব পাওয়া হয়ে গিয়েছে। হ্যাঁ, তিনি তৃণমূল সুপ্রিমোর ‘রঙিন ছেলে’ মদন মিত্র। তিনি মন্ত্রী থেকে গায়ক—সবই হয়ে গিয়েছেন। আর কিছুই তাঁর পাওয়ার নেই। একথা তিনি নিজে বললেও তাঁকে বাংলার পরিবহণ নিগমের নতুন চেয়ারম্যান করা হল। আর উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান করা হয়েছে রবীন্দ্রনাথ ঘোষকে।

শান্তিপুরের মঞ্চে দাঁড়িয়ে জীবনে সব প্রাপ্তির কথা ঘোষণা করার পরই তাঁকে এই পদ দেওয়া হয়। পরিবহণ দফতরের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করে মদন মিত্রকে চেয়ারম্যান করার কথা জানানো হয়। আর সঙ্গে সঙ্গেই পরিবহণ ভবনে পৌঁছে যান কামারহাটির বিধায়ক। নতুন দায়িত্ব পেয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘‌মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আশীর্বাদ নিয়ে নতুন পথ চলা শুরু করলাম। মুখ্যমন্ত্রী যা কথা দেন, তা পালনও করেন। আজ ফের তা দেখলাম।’‌

কামারহাটি থেকে তিনি একুশের নির্বাচনে জয়ী হলেও মন্ত্রী হতে পারেননি। তাই ফেসবুক লাইভে নিজের গান, কথা তুলে ধরতে শুরু করেন। জনপ্রিয়ও হয়ে ওঠেন। রবীন্দ্র সংগীত থেকে শুরু করে ওহে লাভলি জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। বিধায়ক হওয়ার পর থেকে কোনও পদ পাননি তিনি। ফেসবুক লাইভে কামারহাটি পুরসভার দায়িত্বও চেয়েছিলেন মদন মিত্র। সেখানে পরিবহণ নিগমের দায়িত্ব সামলাবেন প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী। যা এখন চর্চার বিষয়।

উল্লেখ্য, মদন মিত্রের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যানের করা হয়েছে রবীন্দ্রনাথ ঘোষকে। ভাইস চেয়ারম্যান হয়েছেন বিনয়কৃষ্ণ বর্মণ, সাবিত্রী মিত্র এবং মৃদুল গোস্বামী। এদিন বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হয়, চেয়ারম্যান এবং ভাইস চেয়ারম্যানের পাশাপাশি ৯জনকে সদস্য করা হয়েছে। জেমস কুজুর, ফজলে করিম মিঞাঁ, হামিদুল রহমান, কল্পনা কিস্কু, মিতালি রায়, প্রতিভা সিং, বিজয় চন্দ্র বর্মণ, রঞ্জন সরকার এবং গৌতম দাস।

বন্ধ করুন