বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌এবার শপথ চলো দিল্লি’, তৃণমূলের দৈনিক মুখপত্রে জাতীয় রাজনীতির সমীকরণ
তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপত্র দৈনিক সংবাদপত্রের রূপ নিল। ছবি সৌজন্য–টুইটার।
তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপত্র দৈনিক সংবাদপত্রের রূপ নিল। ছবি সৌজন্য–টুইটার।

‘‌এবার শপথ চলো দিল্লি’, তৃণমূলের দৈনিক মুখপত্রে জাতীয় রাজনীতির সমীকরণ

  • কিন্তু এই মুখপত্র থেকে পরিষ্কার এবার জাতীয় রাজনীতির সলতেই পাকানো হবে। যার ইঙ্গিত মিলেছে তৃণমূল সুপ্রিমোর কন্ঠস্বরেও।

আজ থেকে জাগো বাংলা দৈনিক হয়ে গেল। অর্থাৎ তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপত্র দৈনিক সংবাদপত্রের রূপ নিল। আজকের দিনটি বেছে নেওয়ার কারণ হলো, একুশ জুলাই শহিদ দিবস। প্রতি বছরের মতো এই বছরও তা পালন করা হয়েছে। এবার রাজ্যের আঙিনা ছেড়ে দেশের অন্যান্য রাজ্যে শোনা গিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কন্ঠস্বর। তবে সবটাই ভার্চুয়ালি। কিন্তু এই মুখপত্র থেকে পরিষ্কার এবার জাতীয় রাজনীতির সলতেই পাকানো হবে। যার ইঙ্গিত মিলেছে তৃণমূল সুপ্রিমোর কন্ঠস্বরেও।

দলীয় মুখপত্রের দৈনিক সংস্করণের প্রথম পাতাতেই উল্লেখ রয়েছে, ‘‌এবার শপথ চলো দিল্লি’‌। সেটাও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরই লেখা। সুতরাং ২০২৪ সালের লোরসভা নির্বাচনকেই পাখির চোখ করা হচ্ছে তা এই হেডলাইন পড়ে স্পষ্ট বুঝেছেন রাজনৈতিক কুশীলবরা। তাছাড়া এদিন তৃণমূল সুপ্রিমো নিজেই বলেছেন, ‘‌সবাই এগিয়ে আসুন। জোট করে এই ব্যর্থ সরকারকে সরিয়ে দিই। সময় নষ্ট করলে এই সরকারকে সরানো যাবে না। কোভিড পরিস্থিতি মিটে গেলে ব্রিগেড সমাবেশ করা হবে। সবাইকে আমন্ত্রণ জানানো হবে। আসুন সবাই একজোট হয়ে এই ব্যর্থ সরকারকে হটিয়ে দিই।’‌

ফোনে আড়িপাতা নিয়েও তিনি মন্তব্য করেছেন। যা উল্লেখ রয়েছে দলীয় মুখপত্রে। আবার সংগঠনকে দুর্ভেদ্য করার কথাও উল্লেখ রয়েছে জাগো বাংলা দৈনিক মুখপত্রে। এই মুখপত্রে রোজ চোখ রাখবেন নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এখান থেকেই নানা বার্তা মানুষের সামনে তুলে ধরা হবে। দেশ এবং রাজনীতির পাশাপাশি সব খবরই এখানে মিলবে। তবে কেন্দ্রীয় সরকারের নীতির সমালোচনা এবং অন্যান্য বিজেপি শাসিত রাজ্যে মানু্য কতটা কষ্টে আছে তা প্রতিনিয়ত তুলে ধরা হবে।

বন্ধ করুন