বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Abhishek Banerjee PA Sumit Roy: আবার ডাকা হয়েছে? ১০ ঘণ্টা পর ইডি অফিস থেকে বেরিয়ে কি বললেন অভিষেকের আপ্তসহায়ক

Abhishek Banerjee PA Sumit Roy: আবার ডাকা হয়েছে? ১০ ঘণ্টা পর ইডি অফিস থেকে বেরিয়ে কি বললেন অভিষেকের আপ্তসহায়ক

সুমিত রায়

জানা গিয়েছে, সুমিত রায় এক সময় বিতর্কিত সংস্থা লিপস অ্যান্ড বাউন্ডসের কর্মী ছিলেন। এই আবহে নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় সুমিতকে তলব করা হয়েছিল ইডি অফিসে। সোমবার বেলা ১২টার পরে সেই মতো সিজিও কমপ্লেক্সে গিয়েছিলেন সুমিত। পরে রাত ১০টা নাগাদ ইডি অফিস থেকে বের হন তিনি। 

নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গতকাল ইডি অফিসে তলব করা হয়েছিল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের আপ্তসহায়ক সুমিত রায়কে। সেই মতো সোমবার দুপুর ১২টা নাগাদ সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরা দিয়েছিলেন সুমিত। এরপর প্রায় ১০ ঘণ্টা তিনি ছিলেন ইডি অফিসে। এরই মাঝে গতকাল কলকাতা হাইকোর্টে উঠেছিল সুমিতের রক্ষাকবচ মামলা। যদিও আদালতের রক্ষাকবচ পাননি অভিষেকের আপ্তসহায়ক। পরে রাত ১০টা নাগাদ সিজিও কমপ্লেক্স থেকে বেরিয়ে আসেন সুমিত। সঙ্গে সঙ্গে সাংবাদিকরা ঘিরে ধরেন তাঁকে। পরপর প্রশ্ন ধেয়ে যায় তাঁর দিকে। ইডি কেন তাঁকে তলব করেছিল? কী বিষয়ে আজ তাঁকে প্রশ্ন করা হল? এই সব প্রশ্নের জবাবে সুমিতের সংক্ষিপ্ত জবাব - 'নো কমেন্টস'। পরে তাঁকে সাংবাদিকরা জিজ্ঞেস করেন, ফের কি তলব করা হয়েছে তাঁকে? এর জবাব সুমিত বলেন, 'না, ডাকা হয়নি।'

উল্লেখ্য, গত শুক্রবারই ইডির তলবকে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন সুমিত। সেই মামলার দ্রুত শুনানির আবেদন করেছিলেন তিনি। দাবি ছিল, ইডির রক্ষাকবচ আদায়। এই আবহে নোটিস অনুযায়ী সোমবার সকাল ১০টায় না গিয়ে বদলে বেলা ১২টায় সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরা দিতে চেয়ে ইডিকে চিঠিও দিয়েছিলেন তিনি। তাঁর আশা ছিল, সকালে আদালতে মামলাটি উঠবে। তবে বেলা ১২টার মধ্যে আদালতে মামলা ওঠেনি। পরে ১২টার কিছু পরে সিজিও কমপ্লেক্সে ইডির দফতরে হাজিরা দেন সুমিত।

পরে সোমবার দ্বিতীয়র্ধে সুমিতের রক্ষাকচ মামলাটি ওঠে হাইকোর্টে। এই আবহে সুমিতের আইনজীবীর বক্তব্য ছিল, একই মামলায় অভিষেককে রক্ষাকবচ দিয়েছে আদালত, তাই যেন সুমিতকেও রক্ষাকবচ দেওয়া হয়। তবে বিচারপতি তীর্থঙ্কর ঘোষ তাঁকে রক্ষাকবচ দিতে অস্বীকার করেন। অবশ্য বিচারপতি ঘোষ জানান, ইডি কোনও কড়া পদক্ষেপ করলে সুমিত হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে পারবেন। এই মামলায় ইডিকে ৩০ নভেম্বরের মধ্যে হলফনামা দিতে হবে। মামলার শুনানি হবে ৪ ডিসেম্বর। তার মধ্যে ইডি যদি সুমিতের বিরুদ্ধে কোনও কড়া পদক্ষেপ করে, তাহলে তিনি আদালতের দ্বারস্থ হতে পারবেন বলে জানিয়েছে উচ্চ আদালত।

জানা গিয়েছে, সুমিত রায় এক সময় বিতর্কিত সংস্থা লিপস অ্যান্ড বাউন্ডসের কর্মী ছিলেন। এই আবহে সংস্থায় তাঁর ভূমিকা কী ছিল? সংস্থাটি কী ধরণের কাজ কর্ম করত? তখন সংস্থার ডিরেক্টর কারা ছিলেন? সংস্থায় তাদের ভূমিকা কী ছিল? এসব জানতেই সুমিতকে তলব করা হয়েছিল বলে জানা যায়।

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

'মোদী কি গ্যারান্টি' লেখা হোর্ডিং রাখুন পেট্রল পাম্পে, 'অনুরোধ' সরকারের পাকিস্তান থেকে সীমাকে ৩ কোটির নোটিশ প্রথম স্বামীর, প্রেমের টানে ভারতে পাক বধূ ‘ওর মনে কিছু একটা চলছিল’, সুশান্তকে নিয়ে বিস্ফোরক 'কেদারনাথ' ছবির পরিচালক দাদাগিরি: ফুডি বাঙালি ইউটিউবারের জীবনে জড়িয়ে দাদা! দেখেশুনে সৌরভও বললেন ‘ওয়াও’ 'অন্যান্য দেশে যদি সম্ভব হয়…?' নির্বাচনে স্টেট ফান্ডিং-এর পক্ষে ফের সওয়াল মমতার কলকাতা পুরসভায় ধরা পড়ল দাঁড়াশ সাপ, বন দফতরকে না জানিয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ অশ্বিনের বল খেলা… ধরমশালায় নামার আগে ভারতীয় স্পিনারকে ভয় পাচ্ছেন ইংরেজ তারকা? ২০২৪ চন্দ্রগ্রহণ ও সূর্যগ্রহণের মাঝে ভাগ্য ঘুরবে ৩ রাশির! লাভ সিংহ সহ বহু রাশির সন্দেশখালি কাণ্ডের তদন্তে সিবিআই, শাহজাহানকে হস্তান্তর করতে নির্দেশ হাইকোর্টের ভাবিনি ফিরতে পারব- ১০০তম টেস্টের আগে গোড়ালির চোটের আতঙ্ক নিয়ে দাবি বেয়ারস্টোর

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.