বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Prasun On Madan: ‘‌মদন মন্ত্রিসভায় নেই দেখে অবাক হচ্ছি’‌, মমতার মন্ত্রিসভা নিয়ে বেলাগাম প্রসূন
প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়।

Prasun On Madan: ‘‌মদন মন্ত্রিসভায় নেই দেখে অবাক হচ্ছি’‌, মমতার মন্ত্রিসভা নিয়ে বেলাগাম প্রসূন

  • প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় বরাবরই ক্রীড়া জগতের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তাই ক্রীড়া জগতের প্রতি তাঁর টান রয়েছে। কিন্তু একজন সাংসদ হওয়া সত্ত্বেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভা নিয়ে কেন প্রশ্ন তুললেন?‌ তা নিয়ে এখন চর্চা তুঙ্গে। আর প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই বক্তব্য এখন ভাইরাল হয়ে পড়েছে।

কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্রের প্রশংসা করতে গিয়ে বেলাগাম মন্তব্য করে ফেললেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ। আর তাতেই এবার তৃণমূল কংগ্রেসের অন্দরে ক্ষোভের সুর হিসাবে দেখা হচ্ছে প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্য। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন প্রসূন। আর প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই বক্তব্য এখন ভাইরাল হয়ে পড়েছে।

ঠিক কী বলেছেন হাওড়ার সাংসদ?‌ মদন মিত্রকে সমর্থন করতে গিয়ে হাওড়ার তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘মদন মিত্র মন্ত্রিসভায় নেই দেখে অবাক হয়ে যাচ্ছি। তৃণমূল কংগ্রেসের জমানায় সেরা ক্রীড়ামন্ত্রী মদন মিত্র। আর কাউকে ক্রীড়ামন্ত্রী হিসেবে আমি মানি না। কেউ রাগ করলে আমার কিছু যায় আসে না। আমি অবাক হয়ে যাচ্ছি মন্ত্রিসভায় মদন মিত্রের নাম নেই।’‌ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় বরাবরই ক্রীড়া জগতের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তাই ক্রীড়া জগতের প্রতি তাঁর টান রয়েছে। কিন্তু একজন সাংসদ হওয়া সত্ত্বেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভা নিয়ে কেন প্রশ্ন তুললেন?‌ তা নিয়ে এখন চর্চা তুঙ্গে।

ঠিক কী বলছে বিজেপি?‌ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মন্তব্যকে নিয়ে এবার ঘোলা জলে মাছ ধরতে নেমে পড়েছে বিজেপি। তৃণমূল কংগ্রেসকে এই নিয়ে বিঁধেছে বিজেপি। রাজ্য বিজেপির মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য এই বিষয়ে বলেন, ‘‌প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মন্তব্য মদনের প্রতি আনুগত্য কিংবা ভালবাসার প্রকাশ নয়। এই মন্তব্যের মাধ্যমে বোঝা যাচ্ছে তৃণমূলের শেষের সময় এসে গিয়েছে।’‌

ঠিক কী বলছে তৃণমূল কংগ্রেস?‌ বিজেপি মুখপত্রের মন্তব্যের পাল্টা তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ শান্তনু সেন বলেন, ‘‌তৃণমূল শৃঙ্খলাপরায়ণ রাজনৈতিক দল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মানুষের আশীর্বাদে মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন। তিনি ঠিক করবেন কে কোন মন্ত্রী হবেন। আর কেউ তা ঠিক করতে পারেন না। আর বিজেপি দলটা তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়েছে। তাই দলে অন্তর্কলহ দিন দিন বাড়ছে।’‌

বন্ধ করুন