বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বহিরাগত বর্গীরা বাংলায় সরকার গড়তে পারবে না, শাহকে পালটা জবাব তৃণমূলের
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

বহিরাগত বর্গীরা বাংলায় সরকার গড়তে পারবে না, শাহকে পালটা জবাব তৃণমূলের

  • এদিন শাহের বিরুদ্ধে দক্ষিণেশ্বর কালী মন্দিরে দাঁড়িয়ে সাম্প্রদায়িক বিভাজন করার অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহের অভিযোগের পালটা জবাব দিল তৃণমূল। শুক্রবার সন্ধ্যায় শাহের সাংবাদিক বৈঠক শেষ হতেই সাংবাদিক বৈঠক করেন তৃণমূলের রাজ্যসভার দলনেতা শুখেন্দুশেখর রায়। সেখানে তিনি বলেন, বিজেপি পশ্চিমবঙ্গে গোবলয়ের রাজনীতি চালু করার চেষ্টা করছে। তাঁর দাবি, বাংলা দখল করতে পারবে না বহিরাগত বর্গিরা। 

এদিন শুখেন্দুশেখরবাবু বলেন, পশ্চিমবঙ্গ সফরে এসে মিথ্যের বেসাতি করছেন অমিত শাহ। অহেতুক কলঙ্কিত করা হচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে। তাঁর দাবি, সংবাদমাধ্যমের সামনে মিথ্যা তথ্য তুলে ধরছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। 

এদিন একে একে শাহের করা সমস্ত অভিযোগ তথ্য দিয়ে খণ্ডন করেন তিনি। বলেন, পশ্চিমবঙ্গে আয়ুষ্মান ভারতের থেকে ভাল স্বাস্থ্য প্রকল্প রয়েছে। একই সঙ্গে দাবি করেন কেন্দ্রের থেকে বেশি টাকা কৃষকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে দেয় পশ্চিমবঙ্গ সরকার। 

নারী সুরক্ষা নিয়ে উত্তর প্রদেশের পরিসংখ্যান নিয়ে শাহকে বেঁধেন তিনি। দাবি করেন, উত্তর প্রদেশের মতো করুণ অবস্থা দেশে নারীদের আর কোথাও নয়। সঙ্গে তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোনও তোষণের রাজনীতি করে না। তিনি সমস্ত সম্প্রদায়কে সঙ্গে নিয়ে চলে। 

এদিন শাহের বিরুদ্ধে দক্ষিণেশ্বর কালী মন্দিরে দাঁড়িয়ে সাম্প্রদায়িক বিভাজন করার অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল। শুক্রবার সকালে দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে পুজো দিয়ে শাহ বলেন, ‘চৌতন্য, রামকৃষ্ণের বাংলায় এখন তোষণের রাজনীতি হচ্ছে।’ জবাবে তৃণমূলের তরফে শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় বলেন, বিজেপি যে বাংলার সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচিত নয় তার প্রমাণ এটাই। যে রামকৃষ্ণদেব যত মত তত পথে বিশ্বাসী ছিলেন তাঁর পীঠস্থানে দাঁড়িয়ে ধর্মীয় বিভাজন তৈরির চেষ্টা করছেন শাহ। 

 

বন্ধ করুন