বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের অপসারণ চেয়ে রাষ্ট্রপতিকে স্মারকলিপি তৃণমূলের
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের অপসারণ চেয়ে রাষ্ট্রপতিকে স্মারকলিপি তৃণমূলের

  • তৃণমূলের দাবি, সংবিধান অনুসারে রাজ্যপাল শুধুমাত্র রাজ্য সরকারের মাধ্যমে নিজের কর্তব্য নির্বাহ করতে পারেন। যে কোনও আপত্তি তিনি জানাতে পারেন রাজ্য সরকারকে। প্রকাশ্যে মন্তব্য করার অধিকার নেই তাঁর।

পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের প্রত্যাহার দাবি করে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে স্মারকলিপি দিল তৃণমূল কংগ্রেস। ৬ পাতার সেই স্মারকলিপিতে দাবি করা হয়েছে, সাংবিধানিক সীমারেখা লাগাতার লঙ্ঘন করছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। মানছেন না সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশিকা।

বুধবার তৃণমূল ভবনে এক সাংবাদিক বৈঠকে স্মারকলিপির ব্যাপারে জানান তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায়। তিনি বলেন, পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপালের দায়িত্বে আসার পর থেকে লাগাতার রাজ্য সরকারের সঙ্গে অসহযোগিতা করছেন জগদীপ ধনখড়। সাংবিধানিক রীতিনীতি মানছেন না তিনি। মানছেন না সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ। বিভিন্ন সময় টুইটে মন্ত্রিসভার সমালোচনা করেছেন। প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রীকে। বিধানসভার স্পিকারেরও সমালোচনায় সরব হয়েছেন তিনি। যা সংবিধানবিরোধী। 

তৃণমূলের দাবি, সংবিধান অনুসারে রাজ্যপাল শুধুমাত্র রাজ্য সরকারের মাধ্যমে নিজের কর্তব্য নির্বাহ করতে পারেন। যে কোনও আপত্তি তিনি জানাতে পারেন রাজ্য সরকারকে। প্রকাশ্যে মন্তব্য করার অধিকার নেই তাঁর। কিন্তু নিজের সাংবিধানিক সুরক্ষাকবচ ব্যবহার করে একের পর এক সরকারি বিভাগের বিরুদ্ধে মুখ খুলছেন তিনি। এমনকী হুমকি দিচ্ছেন পুলিশকে। যার কোনও নজির গোটা দেশে নেই।

লাগাতার সাংবিধানিক নির্দেশিকা অমান্য করায় সংবিধানের ১৫৬ (১) অনুচ্ছেদ অনুসারে রাষ্ট্রপতিকে তাঁর সম্মতি প্রত্যাহারের অনুরোধ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। রাষ্ট্রপতি ভবনের তরফে এই স্মারকলিপি গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সুখেন্দুশেখর। 

এই নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের কোনও প্রতিক্রিয়া এখনো মেলেনি।

বন্ধ করুন