বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বহিরাগত তত্ত্বে এবার তৃণমূলে বিদ্রোহ, এলাকার কাউকে প্রার্থী করার দাবি উঠল বালিতে
বাঁ দিকে সেই ব্যানার। ডান দিকে বালির বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়া। 
বাঁ দিকে সেই ব্যানার। ডান দিকে বালির বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়া। 

বহিরাগত তত্ত্বে এবার তৃণমূলে বিদ্রোহ, এলাকার কাউকে প্রার্থী করার দাবি উঠল বালিতে

  • বৈশালী ডালমিয়ার বিরুদ্ধে বেশ কিছুদিন ধরেই ক্ষোভ জমছিল বালির তৃণমূলকর্মীদের মধ্যে। তাঁকে বাইরে থেকে এনে চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে দাবি তাঁদের।

এবার তৃণমূলের অন্দরেই ‘বহিরাগত’ তত্ত্বে বিদ্রোহ। এলাকার কাউকে প্রার্থী করার দাবি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি সহ ব্যানার দেখা গেল হাওড়ার বালির বিস্তীর্ণ এলাকায়। নাম না থাকলেও স্পষ্ট ইঙ্গিত, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী হিসাবে পছন্দ নয় বর্তমান বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়াকে। ঘটনায় অস্বস্তিতে তৃণমূল নেতৃত্ব। 

মঙ্গলবার সকালে বালির বেশ কয়েকটি জায়গায় বেশ কয়েকটি ব্যানার দেখা যায়। তাতে বাংলা, হিন্দি ও উর্দুতে লেখা, ‘বালির সক্রিয় তৃণমূল কর্মীদের মাননীয় দিদির কাছে অনুরোধ, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বালিতে কোনও বহিরাগত নয়,বালির মানুষকে প্রার্থী হিসাবে চাই।’ ব্যানার প্রকাশিত হয়েছে ‘সক্রিয় তৃণমূল সমর্থক’দের নামে।

বৈশালী ডালমিয়ার বিরুদ্ধে বেশ কিছুদিন ধরেই ক্ষোভ জমছিল বালির তৃণমূলকর্মীদের মধ্যে। তাঁকে বাইরে থেকে এনে চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে দাবি তাঁদের। এলাকায় বিপদে আপদে বিধায়কের দেখা মেলে না বলেও অনেকের অভিযোগ। এই নিয়ে সম্প্রতি প্রকাশ্যে মুখ খুলেছিলেন তৃণমূলের এক প্রাক্তন কাউন্সিলর। 

তবে নিজেকে বালিতে বহিরাগত মানতে রাজি নন বৈশালীদেবী। তিনি বলেন, ‘বালিতে আমার বাড়ি আছে, সম্পত্তি আছে। তাহলে বহিরাগত হলাম কী করে? যারা এসব চক্রান্ত করছে তাদের সঙ্গে দলের কোনও যোগাযোগ নেই। আমি সব কথা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জানিয়েছি।’

বন্ধ করুন