বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌তাহলে রাজ্য সরকার রাখার মানে কি?’‌, সিবিআই তদন্তের বিরুদ্ধে টুইট দেবাংশুর
দেবাংশু ভট্টাচার্য।

‘‌তাহলে রাজ্য সরকার রাখার মানে কি?’‌, সিবিআই তদন্তের বিরুদ্ধে টুইট দেবাংশুর

  • এই রায় নিয়েই তোপ দাগলেন তৃণমূল কংগ্রেসের যুব নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য।

রামপুরহাট গণহত্যায় রাজ্য সিট গঠন করলেও আজ, শুক্রবার সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। শুক্রবার এই হত্যাকাণ্ডের রায় দিতে গিয়ে আদালত স্পষ্ট করেছে, কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকে রাজ্য সরকার যেন সহযোগিতা করে। ফলে সিটের আর কোনও প্রয়োজনীয়তা থাকল না। এই রায় নিয়েই তোপ দাগলেন তৃণমূল কংগ্রেসের যুব নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য।

কলকাতা হাইকোর্ট কী রায় দিয়েছে?‌ আজ, শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্ট রায় দেয়, ‘‌আমরা এই ঘটনার বিস্তারিত পর্যবেক্ষণ করেছি। এই মামলার পরিস্থিতি বিবেচনা করে আদালত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, এই মামলা সিবিআই–কে দেওয়া প্রয়োজন। বিচারব্যবস্থা এবং সমাজের প্রতি ন্যায়বিচারের জন্য স্বচ্ছ তদন্ত করে সত্য সামনে নিয়ে আসা অত্যন্ত জরুরি। তাই এই মামলাটি সিবিআই–এর হাতে তুলে দিচ্ছে আদালত। আর রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে যত দ্রুত সম্ভব মামলাটি সিবিআইয়ের হাতে তারা তুলে দিক।’

ঠিক কী টুইট করেছেন দেবাংশু ভট্টাচার্য?‌ এদিন রায় প্রকাশের পর তৃণমূল কংগ্রেসের যুব নেতা টুইটে লেখেন, ‘‌সব তদন্তই যদি সিবিআই করবে তাহলে রাজ্য সরকার রাখার মানে কি? আদালত, রাজ্যপাল এবং সিবিআই মিলেই তবে রাজ্য চালাক! নির্বাচিত সরকারের প্রয়োজন নেই।’‌ তবে কলকাতা হাইকোর্টের রায়ের পর সিটের আর কোনও প্রাসঙ্গিকতা থাকল না বলেই মনে করা হচ্ছে।

বরং সিবিআই বাড়তি দায়িত্ব পেল। তদন্ত থেকে গ্রেফতার সবই করতে পারবে এই সিবিআই। যদিও এই মামলার পরবর্তী শুনানি ৭ এপ্রিল। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় ফরেনসিক টিম এখানে আজ আসছে। তার মধ্যে বগটুই গ্রামের হত্যাকাণ্ডের ঘটনা সিবিআইয়ের হাতে ন্যস্ত করে দেওয়ায় বিষয়টিকে তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন