বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > প্রেমিকার সঙ্গেই বিয়ে, বউভাতের সকালে মর্মান্তিক মৃত্যু তৃণমূল কাউন্সিলরের ছেলের
স্ত্রীর সঙ্গে নীলাদ্রি চক্রবর্তী। ডানদিকে, চলছে গায়ে হলুদ। ছবি : সংগৃহীত
স্ত্রীর সঙ্গে নীলাদ্রি চক্রবর্তী। ডানদিকে, চলছে গায়ে হলুদ। ছবি : সংগৃহীত

প্রেমিকার সঙ্গেই বিয়ে, বউভাতের সকালে মর্মান্তিক মৃত্যু তৃণমূল কাউন্সিলরের ছেলের

  • কাউন্সিলরের ছেলের বিয়েতে নিমন্ত্রিত অতিথির সংখ্যা ছিল অনেক। তাই দু’‌দিন ধরে বউভাতের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। শনিবারই হওয়ার কথা ছিল বউভাত। কিন্তু তার আগেই নীলাদ্রির এই আকস্মিক মৃত্যুতে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

প্রেমিকার সঙ্গেই ধুমধাম করে বিয়ে হয় বুধবার। দু’‌দিন ধরে বউভাত হওয়ার কথা ছিল। বাড়ির কাছে বিশাল মাঠ জুড়ে বাঁধা হয়েছিল প্যান্ডেল। কিন্তু তার আগেই শনিবার সকালে আচমকা মৃত্যু হল বরের। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে বাঘাযতীন এলাকায়। অসুস্থতার জেরে স্বাভাবিক মৃত্যু হলেও ঘটনাকে ঘিরে উঠেছে আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ।

কিন্তু হঠাৎ তরতাজা এক যুবকের কী করে মৃত্যু হল?‌ জানা গিয়েছে, শনিবার ভোরে হঠাৎ শরীর খারাপ করে ২৫ বছর বয়সী নীলাদ্রি চক্রবর্তীর। দ্রুত তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় পিয়ারলেস হাসপাতালে। সেখানেই চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন নীলাদ্রিকে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বাঘাযতীন এলাকার ৯৯ নম্বর ব্লক তৃণমূলের প্রাক্তন সভাপতি তৃণমূল কাউন্সিলর নিশীথ চক্রবর্তীর ছেলে নীলাদ্রি প্রেম করেই বিয়ে করছিলেন। সব ঠিকঠাকভাবে চলছিল। বন্ধুদের সঙ্গে মিলে রীতিমতো হল্লা করে বিয়ে করেন নীলাদ্রি। কাউন্সিলরের ছেলের বিয়েতে নিমন্ত্রিত অতিথির সংখ্যা ছিল অনেক। তাই দু’‌দিন ধরে বউভাতের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। শনিবারই হওয়ার কথা ছিল বউভাত। কিন্তু তার আগেই নীলাদ্রির এই আকস্মিক মৃত্যুতে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

এদিকে, ঘটনাকে ঘিরে উঠেছে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ। মৃত যুবকের বাড়ির লোকজনই এমন অভিযোগ করেছেন বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে। যদিও পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনার সঙ্গে অস্বাভাবিক মৃত্যুর কোনও কারণ নেই। অসুস্থতার জেরেই মৃত্যু হয়েছে নীলাদ্রি চক্রবর্তীর।

বন্ধ করুন