বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অজমেঢ় থেকে ট্রেনে রওনা দিলেন বাংলার তীর্থযাত্রীরা, রেলভাড়া নিয়ে ধাঁধা

অজমেঢ় থেকে ট্রেনে রওনা দিলেন বাংলার তীর্থযাত্রীরা, রেলভাড়া নিয়ে ধাঁধা

  • জানা গিয়েছে, অজমেঢ়ে সুফি সন্ত খাজা মৈনুদ্দিন চিস্তির দরগা দর্শন করতে এসে লকডাউনের কারণে আটকে পড়েছিলেন বাংলার এই তীর্থযাত্রীরা। তাঁদের বাংলায় ফেরাতে রওনা দিল বিশেষ ট্রেন।
সোমবার সকালে রাজস্থানের অজমেঢ় স্টেশনে পশ্চিমবঙ্গগামী ট্রেনে রওনা হলেন বাংলার ১,০০০ জন আটকে পড়া তীর্থযাত্রী। এর আগে গত ১ মে মাঝরাতে জয়পুর থেকে পটনায় ১,১৮০ জন পরিযায়ী শ্রমিককে পৌঁছে দিয়েছে একটি শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেন। নাগপুর থেকে ঝাড়খণ্ডের হাতিয়াতে ৯০৫ জন শ্রমিককে রবিবার পৌঁছে দিয়েছে অন্য একটি ট্রেন।
1/5সোমবার সকালে রাজস্থানের অজমেঢ় স্টেশনে পশ্চিমবঙ্গগামী ট্রেনে রওনা হলেন বাংলার ১,০০০ জন আটকে পড়া তীর্থযাত্রী। এর আগে গত ১ মে মাঝরাতে জয়পুর থেকে পটনায় ১,১৮০ জন পরিযায়ী শ্রমিককে পৌঁছে দিয়েছে একটি শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেন। নাগপুর থেকে ঝাড়খণ্ডের হাতিয়াতে ৯০৫ জন শ্রমিককে রবিবার পৌঁছে দিয়েছে অন্য একটি ট্রেন।
জানা গিয়েছে, আজমেরে সুফি সন্ত খাজা মৈনুদ্দিন চিস্তির দরগা দর্শন করতে এসে লকডাউনের কারণে আটকে পড়েছিলেন বাংলার এই তীর্থযাত্রীরা। এ দিন সকাল ১১.২৫ মিনিটে আজমের স্টেশন থকে তাঁদের নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের উদ্দেশে রওনা দেয় বিশেষ ট্রেন। 
2/5জানা গিয়েছে, আজমেরে সুফি সন্ত খাজা মৈনুদ্দিন চিস্তির দরগা দর্শন করতে এসে লকডাউনের কারণে আটকে পড়েছিলেন বাংলার এই তীর্থযাত্রীরা। এ দিন সকাল ১১.২৫ মিনিটে আজমের স্টেশন থকে তাঁদের নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের উদ্দেশে রওনা দেয় বিশেষ ট্রেন। 
বিচ্ছিন্ন তীর্থযাত্রীদের নিজরাজ্যে ফেরার জন্য রেলটিকিটের ভাড়া মিটিয়েছে দরগা কমিটি এবং অজমেঢ় শরিফ দিওয়ান। এই তথ্য জানিয়েছেন দরগা কমিটির সম্পাদক শাকিল আহমেদ। তিনি জানিয়েছেন, এই বাবদ রেলওয়েকে কমিটির তরফে মোট ৮,২৫,৬৬০ টাকা দেওয়া হয়েছে।
3/5বিচ্ছিন্ন তীর্থযাত্রীদের নিজরাজ্যে ফেরার জন্য রেলটিকিটের ভাড়া মিটিয়েছে দরগা কমিটি এবং অজমেঢ় শরিফ দিওয়ান। এই তথ্য জানিয়েছেন দরগা কমিটির সম্পাদক শাকিল আহমেদ। তিনি জানিয়েছেন, এই বাবদ রেলওয়েকে কমিটির তরফে মোট ৮,২৫,৬৬০ টাকা দেওয়া হয়েছে।
এর আগে উত্তর প্রদেশ, মধ্য প্রদেশ ও গুজরাতের তীর্থযাত্রীদের ফেরাতে বাসভাড়াও মিটিয়েছে দরগা কমিটি।
4/5এর আগে উত্তর প্রদেশ, মধ্য প্রদেশ ও গুজরাতের তীর্থযাত্রীদের ফেরাতে বাসভাড়াও মিটিয়েছে দরগা কমিটি।
এ দিকে উত্তর পশ্চিম রেলের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘আমরা জানি না কী ভাবে ওই অর্থ ওঁরা সংগ্রহ করেছেন। তবে প্রতিটি ট্রেনের ভাড়া বাবদ অর্থ জেলা প্রশাসনের থেকে পেয়েছে রেলওয়ে।’
5/5এ দিকে উত্তর পশ্চিম রেলের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘আমরা জানি না কী ভাবে ওই অর্থ ওঁরা সংগ্রহ করেছেন। তবে প্রতিটি ট্রেনের ভাড়া বাবদ অর্থ জেলা প্রশাসনের থেকে পেয়েছে রেলওয়ে।’
অন্য গ্যালারিগুলি