বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ধর্মে আঘাত করার অভিযোগ, কুণাল ঘোষের বিরুদ্ধে চার্জশিট ত্রিপুরা পুলিশের
তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ (‌ছবি সৌজন্য এএনআই)‌
তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ (‌ছবি সৌজন্য এএনআই)‌

ধর্মে আঘাত করার অভিযোগ, কুণাল ঘোষের বিরুদ্ধে চার্জশিট ত্রিপুরা পুলিশের

  • এই মামলায় কুণাল ঘোষ আগেই থানায় গিয়ে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হয়েছিলেন। কুণাল থানায় নিয়ে গিয়েছিলেন রামায়ণের বিভিন্ন সংস্করণ ও গবেষণাগ্রন্থ। ২০২১ সালের ১২ নভেম্বর ত্রিপুরার বাগমা ফাঁড়িতে পুলিশের মুখোমুখি হয়েছিলেন তিনি। ৬ মাস পর এই সংক্রান্ত মামলাতেই এখন চার্জশিট দিয়েছে ত্রিপুরা পুলিশ।

আত্মহত্যার মামলা থেকে বাঁচলেও ফের তাঁর বিরুদ্ধে মামলায় চার্জশিট জমা পড়ল আদালতে। হ্যাঁ, তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষ। এবার তাঁর বিরুদ্ধে ত্রিপুরার একটি আদালতে চার্জশিট পেশ করল ত্রিপুরা পুলিশ। অমরাবতী জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত কুণালের নামে সমন জারি করেছেন। এমনকী ৩০ মে আদালতে হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ঠিক কী বিষয়ে মামলা?‌ ত্রিপুরায় কুণাল ঘোষ বলেছিলেন, জয় সীতারাম বা সিয়ারাম থেকে বিকৃত বা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সীতাকে বাদ দিয়ে শ্রীরাম করা হয়েছে। রাম–রাজ্যে অপমানিত হয়ে সীতাকে প্রথম অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় বনবাসে যেতে হয়েছিল। এরপর পাতালপ্রবেশের মধ্যে দিয়ে কার্যত আত্মহনন করেন তিনি। তারপরই ত্রিপুরা পুলিশ ধর্মে আঘাত করার অভিযোগে একাধিক মামলা করে।

তারপর কী ঘটেছিল ত্রিপুরায়?‌ এই মামলায় কুণাল ঘোষ আগেই থানায় গিয়ে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হয়েছিলেন। কুণাল থানায় নিয়ে গিয়েছিলেন রামায়ণের বিভিন্ন সংস্করণ ও গবেষণাগ্রন্থ। ২০২১ সালের ১২ নভেম্বর ত্রিপুরার বাগমা ফাঁড়িতে পুলিশের মুখোমুখি হয়েছিলেন তিনি। ৬ মাস পর এই সংক্রান্ত মামলাতেই এখন চার্জশিট দিয়েছে ত্রিপুরা পুলিশ।

ঠিক কী বলেছেন কুণাল ঘোষ?‌ এই বিষয়ে কুণাল ঘোষ বলেন, ‘‌এটা হয়রানি করার জন্য মামলা। আমি নিজেও হিন্দু। কোনও ধর্মকে আমি ছোট করিনি, করিও না। আমি যা বলেছি রামায়ণ থেকে বলেছি। রামায়ণ সংক্রান্ত গবেষণাপত্র থেকে বলেছি। আমি সমন পেয়েছি। আমি আইন মেনে চলি। আমি আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলছি।’‌

বন্ধ করুন