বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌গুন্ডামি বিজেপি সংস্কৃতি’‌, তুলোধনা অভিষেকের, ‘‌উৎপাত করা হচ্ছে’‌, তোপ দিলীপের
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি সৌজন্য : পিটিআই (PTI)
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি সৌজন্য : পিটিআই (PTI)

‘‌গুন্ডামি বিজেপি সংস্কৃতি’‌, তুলোধনা অভিষেকের, ‘‌উৎপাত করা হচ্ছে’‌, তোপ দিলীপের

  • আর তাকে কেন্দ্র করেই এই রাজ্যে যুযুধান প্রতিপক্ষ একে–অন্যকে তোপ দেগেছেন।

বিপ্লব গড়ে লাল নিশান ভূলুন্ঠিত হতেই উত্তর–পূর্বের রাজনীতিতে তেতে উঠেছে। বুধবার ত্রিপুরায় সিপিআইএমের উপর ব্যাপক আক্রমণ নামিয়ে আনে বিজেপি বলে অভিযোগ। আর তাকে কেন্দ্র করেই এই রাজ্যে যুযুধান প্রতিপক্ষ একে–অন্যকে তোপ দেগেছেন। এখন ত্রিপুরায় পা রেখেছে তৃণমূল কংগ্রেস। খানিকটা সক্রিয় হয়েছে সিপিআইএম। আর তাতেই লাগামছাড়া আক্রমণ নেমে এসেছে।

গতকাল সন্ধ্যেবেলায় ত্রিপুরায় সিপিআইএম কার্যালয়ে হামলা করে দুষ্কৃতীরা। সিপাহীজলার ধনপুরের পার্টি অফিসে তাদের সংঘর্ষ বাঁধে। সংবাদমাধ্যমের উপরও হামলা নেমে আসে। এই ঘটনায় বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে সিপিআইএম। আর এক্ষেত্রে বামেদের পাশে দাঁড়িয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। টুইটে বিজেপিকে তুলোধনা করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। পাল্টা তোপ দেগেছেন দিলীপ ঘোষ।

ঠিক কী লিখেছেন অভিষেক?‌ এদিন টুইটে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় লেখেন, ‘‌গুন্ডামি ও অরাজগতাকে সংস্কৃতি করে ফেলেছে ত্রিপুরা বিজেপি। আজ গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভও আক্রান্ত। আমরা সংবাদমাধ্যমের পাশে আছি এবং ত্রিপুরায় বিপ্লব দেব সরকারের দুয়ারে গুন্ডা মডেলের বিরুদ্ধে লড়াই আমরা জারি রাখব।’‌ অর্থাৎ আবার ত্রিপুরায় তৃণমূল কংগ্রেস আন্দোলনে নামবে বলে বার্তা দেওয়া হয়েছে।

অভিষেকের মন্তব্যের পাল্টা হিসেবে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‌এখান থেকে নেতা নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এখান থেকে মিডিয়া নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এখান লোক নিয়ে গিয়ে যোগদান করানো হচ্ছে। ওখানে উৎপাত করা হচ্ছে। আমার মনে হয় ওখানকার লোকজন এটা পছন্দ করছে না।’‌ মানুষ পছন্দ করছে না বলেই এই হামলা বলে ব্যাখ্যা তাঁর বলে মনে করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন