বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌তুষার–শুভেন্দুর বৈঠক হয়নি?’‌ সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ্যে আনার দাবি অভিষেকের
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি সৌজন্য : পিটিআই (PTI)
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি সৌজন্য : পিটিআই (PTI)

‘‌তুষার–শুভেন্দুর বৈঠক হয়নি?’‌ সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ্যে আনার দাবি অভিষেকের

  • চাপে পড়ে বৈঠকের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন কেন্দ্রের সলিসিটর জেনারেল। তার প্রেক্ষিতে পাল্টা টুইট প্রশ্ন তুললেন তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

তুষার মেহতা–শুভেন্দু অধিকারীর সাক্ষাৎ–বিতর্ক এবার অনেকদূর পর্যন্ত গড়াল। কারণ নয়াদিল্লিতে গিয়ে নারদ মামলায় নাম থাকা বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতার বাড়ি গিয়েছিলেন। এমনকী এই মামলার দায়িত্বে রয়েছেন তুষার মেহতা। আবার দু’‌পক্ষই অস্বীকার করেছেন তাঁদের মধ্যে কোনও বৈঠক হয়নি। এই ঘটনা নিয়ে শুভেন্দু অধিকারীকে গ্রেফতারের দাবি করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। বিতর্ক এমন পর্যায়ে গিয়েছে যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখে সলিসিটর জেনারেলের অপসারণ দাবি করা হয়েছে। চাপে পড়ে বৈঠকের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন কেন্দ্রের সলিসিটর জেনারেল। তার প্রেক্ষিতে পাল্টা টুইট প্রশ্ন তুললেন তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর দাবি, কেন্দ্রের জেনারেল সলিসিটরের বাড়িতে শুভেন্দু অধিকারী উপস্থিত থাকাকালীন সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ্যে নিয়ে আসা হোক।

অভিষেকের এই টুইটে আরও চাপ বাড়ল দু’‌জনের। কারণ এই সিসিটিভি ফুটেজ বাইরে বেরোলে তাঁদের দাবি মানুষের সামনে মিথ।এ প্রমাণিত হবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা। তৃণমূল কংগ্রেসের এক প্রথমসারির নেতা বলেন, ‘‌তুষার মেহতাকে তো কিছু জিজ্ঞসা করা হয়নি। তাহলে তিনি আগ বাড়িয়ে মন্তব্য করতে গেলেন কেন?‌ এটা থেকেই তো প্রমাণিত হয়, ঠাকুর ঘরে কে?‌ আমি তো কলা খাইনি।’‌

নয়াদিল্লিতে শুভেন্দু কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করার পর ১০ আকবর রোডে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতার বাড়িতেও যান। তারপর থেকে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, কেন তুষার মেহতার সঙ্গে দেখা করলেন?‌ নারদ মামলা নিজের নাম যাতে ধামাচাপা দেওয়া যায়?‌ কলকাতা হাইকোর্টের বৃহত্তর বেঞ্চে যখন নারদ মামলার শুনানি চলছে। আর সিবিআই–এর আইনজীবীর সঙ্গে কেন দেখা করলেন বিজেপি নেতা?

সলিসিটর জেনারেলের দাবি, শুভেন্দু তাঁর বাড়িতে গেলেও অ্যাপয়ন্টমেন্ট না থাকায় তিনি চা পান করেই ফিরে যান। এই দাবির প্রেক্ষিতেই টুইটে আক্রমণ শানালেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিষেক টুইটারে লেখেন, তুষার মেহতার দাবি অনুযায়ী, শুভেন্দুর সঙ্গে তাঁর গোপন বৈঠক হয়নি। কিন্তু এই দাবির স্বপক্ষে সিসিটিভি ফুটেজ সামনে আনা হোক। আগাম অ্যাপয়েন্টমেন্ট ছাড়াই তাঁর বাড়িতে উপস্থিত হয়েছিলেন শুভেন্দু?

অভিষেক বন্দ্যোপাধষ্যায় টুইটে আরও লেখেন, ‘‌মিস্টার অধিকারী বিভিন্ন অফিসারের উপস্থিতিতে মাননীয় সলিসিটর জেনারেলের বাসভবনে প্রবেশ করেন এবং সেখানে প্রায় ৩০ মিনিট ছিলেন। তারপরেও কি বৈঠক বাকি রয়েছে আশা করা যায়? গোটা ব্যাপারটাই অস্পষ্ট। আশা করা যায় প্রকৃত সত্য সামনে আসবে।’‌ এই ইস্যুতে এখন তোলপাড় রাজ্য–রাজনীতি।

বন্ধ করুন