বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > সাধুর বেশে তরুণীর শ্লীলতাহানি, তাবিজ পরানোর টোপ দিয়ে টাকা লুঠ, গ্রেফতার ২
কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ। প্রতীকী ছবি।

সাধুর বেশে তরুণীর শ্লীলতাহানি, তাবিজ পরানোর টোপ দিয়ে টাকা লুঠ, গ্রেফতার ২

  • সেই পরিস্থিতির মধ্যেই ফের এক কলেজছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠল উত্তর ২৪ পরগনার নোয়াপাড়ায়। 

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে ধর্ষণ শ্লীলতাহানির ঘটনায় উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। প্রতিদিন রাজ্যের কোনও না কোনও জায়গা থেকে ধর্ষণ শ্লীলতাহানির মতো অভিযোগ উঠে আসছে। এই ধরনের ঘটনা যেভাবে ঘটছে তাতে রাজ্যে নারীরা কতটা সুরক্ষিত তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিরোধিতা। সম্প্রতি একটি মামলায় কলকাতা হাইকোর্ট রাজ্যে নারীদের সুরক্ষা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। সেই পরিস্থিতির মধ্যেই ফের এক কলেজছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠল উত্তর ২৪ পরগনার নোয়াপাড়ায়। সাধুর বেশে দুই ব্যক্তি তার শ্লীলতাহানি করেছে বলে অভিযোগ।

শুধু শ্লীলতাহানি নয়, ওই কলেজ ছাত্রীর বাড়ি থেকে টাকা লুঠেরও অভিযোগ উঠেছে ওই দুই দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গতকাল সাধুর বেশে ওই কলেজছাত্রীর বাড়িতে ঢুকে পড়ে দুজন। প্রথমে তারা আধ্যাত্মিক কথাবার্তা বলে ছাত্রীকে মুগ্ধ করার চেষ্টা করে। এরপরে তারা কথায় কথায় জানিয়ে দেয় যে, ওই ছাত্রীর খারাপ সময় আসছে। খারাপ সময় থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায় হিসেবে তাবিজ পড়ানোর টোপ দেয় দুষ্কৃতীরা। কিন্তু, ঘটনার সময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা বাড়িতে না থাকার সুযোগে অভিযুক্তরা কলেজ ছাত্রীর শ্লীলতাহানি করে এবং বাড়িতে থাকা টাকা লুঠ করে পালানোর চেষ্টা করে। তখনই কলেজছাত্রীর চিৎকার-চেঁচামেচিতে প্রতিবেশীরা ছুটে আসেন। তারাই ২ অভিযুক্তকে ধরে ফেলে। পরে তাদের পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই দু'জন বিহারের দ্বারভাঙ্গার বাসিন্দা। তারা এই ধরনের ঘটনা আরও ঘটিয়েছে আছে কিনা। তাদের সঙ্গে আরও কারা কারা জড়িত তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। আজ তাদের আদালতে তোলা হলে পুলিশ হেফাজতের আবেদন জানানো হয়।

বন্ধ করুন