বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নিউ টাউনে গ্যাংস্টারদের ফ্ল্যাটে আসা ২ তরুণী কে? সন্ধান চালাচ্ছে পুলিশ
নিউটাউনের  সেই আবাসন। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
নিউটাউনের  সেই আবাসন। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

নিউ টাউনে গ্যাংস্টারদের ফ্ল্যাটে আসা ২ তরুণী কে? সন্ধান চালাচ্ছে পুলিশ

তদন্তকারীদের কাছে খবর, একটি কালো গাড়িতে করে ওই ২ তরুণী ফ্ল্যাটে এসেছিলেন। যে গাড়িতে করে তাঁরা ওই নিউ টাউনের আবাসনে এসেছিলেন, সেটা খোঁজার চেষ্টা করছেন তদন্তকারীরা।

‌নিউ টাউনে গ্যাংস্টারদের ফ্ল্যাটে এসেছিলেন দুই তরুণীও।আবাসনের সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করে যে তথ্য মিলেছে, তাতে এই বিষয়ে নিশ্চিত হচ্ছেন তদন্তকারীরা।গত ৭ জুন রাতে দুই তরুণী এসেছিলেন গ্যাংস্টারদের ফ্ল্যাটে।তদন্তকারীদের কাছে খবর, একটি কালো গাড়িতে করে ওই ২ তরুণী ফ্ল্যাটে এসেছিলেন।যে গাড়িতে করে তাঁরা ওই নিউ টাউনের আবাসনে এসেছিলেন, সেটা খোঁজার চেষ্টা করছেন তদন্তকারীরা।

রাজ্য পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের কাছে খবর আসে, গত ৭ জুন একটি কালো গাড়িতে করে সাড়ে ৯টা নাগাদ দুই তরুণী নিউ টাউনের আবাসনে যে টাওয়ারে জয়পাল সিং ভুল্লার ও জসপ্রীত সিং থাকত, সেই টাওয়ারের সামনে নামেন।সিসিটিভি ফুটেজের একটা অংশ থেকে এই তথ্য সামনে আসে।পুলিশ জানতে পেরেছে, পরের দিন সকালে ওই দুই তরুণীকে বিদায় জানাতে ফ্ল্যাটের নীচে নেমে আসে ওই দুই গ্যাংস্টার।ওই দুই তরুণীকে বিদায় জানাতে তারা কেন ফ্ল্যাটের নীচে নেমে এসেছিলেন, তা জানার চেষ্টা করছেন তদন্তকারীরা।সেইকারণে যে কালো গাড়িতে করে তারা ফ্ল্যাটে এসেছিল, সেই গাড়িটির খোঁজে আছেন তদন্তকারীরা।প্রথম দিকে তদন্তকারীরা নিশ্চিত ছিলেন না যে ওই দুই তরুণী আদৌ ওই গ্যাংস্টারদের ফ্ল্যাটে গিয়েছিলেন কিনা।যে ডেলিভারি বয় ভুল্লারদের খাবার দিতে আসতেন, তার কাছ থেকে জানা গিয়েছে, গত ৭ জুন দু'জনের পরিবর্তে ৪ জনের খাবার অর্ডার করা হয়েছিল।তদন্তকারীরা প্রথমে অনলাইনে ফুড ডেলিভারি অ্যাপের মাধ্যমে খাবার আনিযে নিত।কিন্তু পরে তারা অনলাইনে খাবার আনা ছেড়ে একটি রেস্তোরাঁর মাধ্যমে খাবার আনা শুরু করে।সেই রেস্তোরাঁ থেকেই একজন ডেলিভারি বয় এসে তাঁদের খাবার দিয়ে যেতেন দু'বেলা।সেই ডেলিভারি বয়কে জিজ্ঞাসা করেই এই তথ্য মিলেছে।

তদন্তকারীরা এখন সেই কালো গাড়ির খোঁজ করে ওই দুই তরুণী পর্যন্ত পৌঁছোতে চাইছে।ওই দুই তরুণীর সঙ্গে ভুল্লারদের কীভাবে পরিচয় হল বা ভুল্লারদের কারবারের ব্যাপারে তারা কিছু জানেন কিনা, সেই ব্যাপারেও জানার চেষ্টা করছেন তদন্তকারীরা।

বন্ধ করুন