বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > পাঁচতলা থেকে পড়ে গেলেন দুই যুবক, তিলজলায় মৃত ১, আশঙ্কাজনক একজন
মৃত্যু যুবকের। (প্রতীকী ছবি)
মৃত্যু যুবকের। (প্রতীকী ছবি)

পাঁচতলা থেকে পড়ে গেলেন দুই যুবক, তিলজলায় মৃত ১, আশঙ্কাজনক একজন

  • দু’‌জন ছাদে মদ্যপান করছিল। তারপরই নেশার ঘোরে ছাদ থেকে নীচে পড়ে যান। নীচে পড়ে যেতেই তড়িঘড়ি দু’‌জনকে চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়।

আবার মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটল শহরে। খুশির ইদের রাতেই মর্মান্তিক দুঃখের ছায়া কলকাতায়। পাঁচতলা বাড়ির ছাদ থেকে পড়ে গেলেন এক যুবক। আর তাতেই মৃত্যু হয়েছে ওই যুবকের। ইদের রাতে ঘটনাটি ঘটেছে তিলজলা এলাকায়। নিহত যুবকের নাম মিঠুন দাস। আর এক যুবককে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাঁর বন্ধু পাপ্পু রাম।

ঠিক কী ঘটেছে তিলজলায়?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, রাত ১০টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে কলকাতার তিলজলা থানা এলাকায়। এখানের তারিখানা মোড়ে পাঁচতলা বাড়ি থেকে পড়ে যান ওই যুবক। আর তার জেরে রাতে শোরগোল পড়ে যায় এলাকায়। মৃত যুবক মিঠুন দাসের বয়স ২৪। আর আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন যুবক পাপ্পু রাম (‌২৮)‌।

এলাকা থেকে কী জানা যাচ্ছে?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, মিঠুন–পাপ্পু দু’‌জন ছাদে মদ্যপান করছিল। তারপরই নেশার ঘোরে ছাদ থেকে নীচে পড়ে যান। নীচে পড়ে যেতেই তড়িঘড়ি দু’‌জনকে চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে মিঠুন দাসকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। আর আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন পাপ্পু রাম।

পরিবার ঠিক কী বলছে?‌ পরিবার সূত্রে খবর, মৃত যুবক মিঠুন দাসের মায়ের অভিযোগ, পাপ্পু রাম পাঁচতলা বাড়ির ছাদ থেকে ঠেলে ফেলে দিয়েছে। তাতেই মৃত্যু হয়েছে ছেলের। পরে নিজেও টাল সামলাতে না পেরে নিজেও পড়ে যায় পাপ্পু রাম। এই ঘটনার তদন্তে নেমেছে তিলজলা থানার পুলিশ। ঠিক কী কারণে এমন দুর্ঘটনা ঘটেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

বন্ধ করুন