বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নড্ডার পর ১৯–২০ ডিসেম্বর পশ্চিমবঙ্গ সফরে অমিত শাহ, শনিবার কলকাতায় মোহন ভাগবত
অমিত শাহ ও মোহন ভাগবত। ফাইল ছবি
অমিত শাহ ও মোহন ভাগবত। ফাইল ছবি

নড্ডার পর ১৯–২০ ডিসেম্বর পশ্চিমবঙ্গ সফরে অমিত শাহ, শনিবার কলকাতায় মোহন ভাগবত

  • এবারও জেলা সফরে যেতে পারেন অমিত শাহ। জেলায় বসে করতে পারেন সাংগঠনিক বৈঠক। জানা গিয়েছে, তিনি বীরভূম জেলায় গিয়ে সেখানকার দলের সাংগঠনিক অবস্থা পর্যালোচনা করবেন।

‌বিজেপি–র সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নড্ডার পর এবার রাজ্যে আসছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। গত একমাসের মধ্যে এটি হতে চলেছে অমিত শাহয়ের দ্বিতীয় পশ্চিমবঙ্গ সফর। একইসঙ্গে শনিবার কলকাতায় আসার কথা আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবতের। তাঁর কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচি নেই বলে আরএসএস দাবি করলেও ২০২১–এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে যে বিজেপি কোমর বেঁধে ময়দানে নেমে পড়েছে তা মেনে নিচ্ছেন রাজনৈতিক ওয়াকিবহল মহল।

দু’‌দিনের রাজ্য সফরে আসছেন অমিত শাহ। রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ এ ব্যাপারে জানিয়েছেন, ‘‌বিধানসভা নির্বাচন পর্যন্ত প্রতি মাসেই রাজ্যে আসবেন জে পি নড্ডা ও অমিত শাহ। এ মাসে নড্ডার সফর হয়ে গেল। এবার আসবেন অমিত শাহ। ১৯ ও ২০ তারিখ রাজ্যে থাকছেন তিনি। এখনও তাঁর কর্মসূচি চূড়ান্ত হয়নি। সে ব্যাপারে পরিকল্পনা করছেন রাজ্য নেতৃত্ব।’‌

দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এবারও জেলা সফরে যেতে পারেন অমিত শাহ। জেলায় বসে করতে পারেন সাংগঠনিক বৈঠক। কোন জেলায় তিনি যাবেন তা চূড়ান্ত না হলেও জানা গিয়েছে, তিনি বীরভূম জেলায় গিয়ে সেখানকার দলের সাংগঠনিক অবস্থা পর্যালোচনা করবেন।

এদিকে, শনিবার কলকাতায় আসার কথা আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবতের। তবে এখনও তা চূড়ান্ত নয়। জানা গিয়েছে, ১৪ ডিসেম্বর কলকাতা থেকে হায়দরাবাদ যাবেন তিনি। যদিও আরএসএস নেতৃত্বের দাবি, কলকাতায় মোহন ভাগবতের কর্মসূচির সঙ্গে রাজনীতির কোনও যোগাযোগ নেই।

এ নিয়ে তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের কটাক্ষ, ‘‌এ সব দেখে পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছে যে পশ্চিমবঙ্গ দখল করতে তাঁরা কতটা মরিয়া। একবার প্রধানমন্ত্রী ঢুকছেন, একবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢুকছেন, একবার নড্ডাজি ঢুকছেন। ঘাঁটি গেড়ে এখানেই বসে আছেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়, অরবিন্দ মেননরা। ডায়মন্ড হারবারে বৈঠক করতে মিনিবাসে করে বিহিরাগত নেতা, ক্যাডারদের নিয়ে যাচ্ছেন ওঁরা। এর থেকেই প্রমাণিত যে রাজ্য বিজেপি–র ওপর কেন্দ্রের বিজেপি নেতৃত্বের কোনও আস্থা নেই।’‌

বন্ধ করুন