বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগে স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার হাইকোর্টের, অভিযোগ থাকলে শুনবে SSC
ব্রেকিং নিউজ

উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগে স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার হাইকোর্টের, অভিযোগ থাকলে শুনবে SSC

কলকাতা হাইকোর্ট (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
কলকাতা হাইকোর্ট (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

  • অভিযোগ খতিয়ে দেখার দায়িত্ব পালন করবেন সচিব পর্যায়ের একজন আধিকারিক। অভিযোগকারীকে ডেকে শুনানি করতে হবে তাঁকে। SSC-র সিদ্ধান্তে অভিযোগকারী সন্তুষ্ট না হলে তিনি ফের আদালতের দ্বারস্থ হতে পারবেন।

উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ মামলায় রাজ্য সরকার সাময়িক স্বস্তি পেলেও আইনি জটিলতা কাটল না। এদিন আদালতের নির্দেশ মেনে SSC যোগ্য প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করায় সন্তোষ প্রকাশ করেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। একই সঙ্গে এই তালিকা নিয়ে কোনও চাকরিপ্রার্থীর কোনও অভিযোগ থাকলে তা SSC-কে খতিয়ে দেখতে হবে বলে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

এদিন আদালত জানিয়েছে, SSC-র প্রকাশিত তালিকায় তারা সন্তুষ্ট। তাই নিয়োগপ্রক্রিয়া স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করছে সরকার। তবে এই তালিকা নিয়ে কারও কোনও অভিযোগ থাকলে তা শুনতে হবে SSC-কে। সেজন্য ২ সপ্তাহের মধ্যে SSC-র কাছে আবেদন করতে পারবেন অসন্তুষ্ট চাকরি প্রার্থীরা। তার পর ১০ সপ্তাহের মধ্যে অভিযোগ খতিয়ে দেখে সিদ্ধান্ত জানাতে হবে SSC-কে। 

অভিযোগ খতিয়ে দেখার দায়িত্ব পালন করবেন সচিব পর্যায়ের একজন আধিকারিক। অভিযোগকারীকে ডেকে শুনানি করতে হবে তাঁকে। SSC-র সিদ্ধান্তে অভিযোগকারী সন্তুষ্ট না হলে তিনি ফের আদালতের দ্বারস্থ হতে পারবেন। সঙ্গে বিচারপতি জানিয়েছেন, SSC-র এই নিয়োগপ্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল ২০১৬ সালে। তার পর দীর্ঘ ৫ বছর ধরে মামলার জেরে আটকে রয়েছে প্রক্রিয়া। তাই চাকরিপ্রার্থীদের বয়সে ছাড় প্রাপ্য। বিষয়টি রাজ্য সরকারকে বিবেচনার জন্য অনুরোধ করেছেন বিচারপতি। সঙ্গে জানিয়েছেন, কেউ অকারণে SSC-র কাছে অভিযোগ দায়ের করলে তাঁকে জরিমানা করতে পারবে SSC.

গত ৩০ জুন উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগে অস্বচ্ছতার অভিযোগ মেনে নিয়ে স্থগিতাদেশ দিয়েছিল রাজ্য সরকার। যার জেরে আটকে গিয়েছিল প্রায় সাড়ে চোদ্দ হাজার পদে নিয়োগ।

 

বন্ধ করুন