বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ভ্যাকসিন নিয়ে বাসিন্দাদের দোরগোড়ায় বাস, দুয়ারে ভ্যাকসিন, অভিনব উদ্যোগ
ভ্রাম্যমান ভ্যাকসিন সেন্টার (নিজস্ব চিত্র)
ভ্রাম্যমান ভ্যাকসিন সেন্টার (নিজস্ব চিত্র)

ভ্যাকসিন নিয়ে বাসিন্দাদের দোরগোড়ায় বাস, দুয়ারে ভ্যাকসিন, অভিনব উদ্যোগ

  • বাজারে বাজারে ঘুরছে ভ্যাকসিন নিয়ে বাস

ভ্যাকসিন নিয়ে বাস যাচ্ছে বাসিন্দাদের কাছে। বলা হচ্ছে ভ্যাকসিনেশন অন হুইল। একটি বাসে চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীদের নিয়ে গিয়ে বাসিন্দাদের ভ্যাকসিন দেওয়ার ব্যবস্থা। বিভিন্ন বাজার এলাকায়, বসতি এলাকায় যাবে এই বাস। কলকাতা পুরসভার প্রশাসকমণ্ডলীর চেয়ারম্য়ান তথা মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বৃহস্পতিবার এই ভ্রাম্যমান টিকাগ্রহণ কেন্দ্রের সূচণা করেন। রাজ্যের মন্ত্রী শশী পাঁজাও উপস্থিত ছিলেন এই অনুষ্ঠানে। এদিন একেবারে লাইন দিয়ে ভ্যাকসিন নেন স্থানীয় ব্যবসায়ী, মুটিয়া, বাজারের শ্রমিকরা। ভ্যাকসিন পেয়ে তাঁরাও অত্যন্ত খুশি।

মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন,' অনেকগুলি বাস আছে। সেই বাসগুলিকে নিয়ে গিয়ে যদি আমরা ভ্যাকসিনেশন শুরু করি তবে অনেকটাই সুবিধা হবে। দোকান ছেড়ে গিয়ে অনেকের পক্ষে ভ্যাকসিনের লাইনে দাঁড়ানো সম্ভব নয়। সেকারণের তাঁদের কাছে গিয়ে ভ্যাকসিন পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আধ ঘণ্টা সেই ব্যক্তিকে পর্যবেক্ষণেও রাখা হবে। ৩৯হাজার ৫০০ ডোজ ভ্যাকসিন এসেছে। ভ্যাকসিন পলিসি কেন্দ্রীয় সরকার যদি ঠিক করে দেয় তবে ভারতের নাগরিকরা সুরক্ষিত থাকবেন।'

শশী পাঁজা বলেন, 'একেবাারে অভিনব ভাবনা। যে প্রান্তিক মানুষরা পৌঁছতে পারছেন না ভ্যাকসিন সেন্টারে, তাঁদের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে ভ্যাকসিন। চারচাকার গাড়িতে করে ভ্যাকসিনের ইউনিট যাচ্ছে। পোস্তা এলাকায় গিয়েছে এই ভ্যাকসিন গাড়ি। দিদির প্রয়াসে এটা সম্ভব হয়েছে। মুটিয়া, মজদুর যাঁরা এখনও ভ্যাকসিন নেননি তাঁদের ভ্যাকসিন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।' 

 

বন্ধ করুন