পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়
পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

আমার নাম শুনলেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন উপাচার্যরা, কটাক্ষ রাজ্যপালের

  • সেইন্ট জেভিয়ার্সের সমাবর্তনে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের গরহাজিরাকে কটাক্ষ ধনখড়ের

সমাবর্তনে হাজির না থাকায় এবার কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে কটাক্ষ করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। বললেন, আমার সঙ্গে আমি উপস্থিত থাকব জানলেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন উপাচার্যরা। ওনার দ্রুত আরোগ্য কামনা করি।

সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালনার নিয়ন্ত্রণ নিয়ে চরমে পৌঁছেছে রাজ্য – রাজ্যপাল সংঘাত। বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে রাজ্যপালের অধিকার খর্ব করতে বিধানসভায় বিধি পাশ করিয়েছে রাজ্য। পালটা রাজ্য সরকারকে এড়িয়ে সরাসরি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন রাজ্যপাল।

গত সোমবার রাজ্যের সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে বৈঠকে ডেকেছিলেন রাজ্যপাল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত রাজভবনে গিয়ে পৌঁছননি কেউ। যদিও পরদিন তৃণমূলের ধরনা মঞ্চের সামনে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে বসে থাকতে দেখা যায় ৩ জন উপাচার্যকে।

এই পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজের সমাবর্তনে হাজির ছিলেন রাজ্যপাল। সেখানে আমন্ত্রিত ছিলেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালি চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে সেখানে যাননি তিনি। এতেই রাজ্যপালের কটাক্ষের মুখে পড়েন তিনি।

এদিন রাজ্যপাল বলেন, আমি আসব শুনলেই উপাচার্যদের শরীর খারাপ হচ্ছে। সংক্ষিপ্ত পরিসরে সোনালি দেবীকে যতটুকু দেখেছি তাতে তাঁকে কর্মচঞ্চল ব্যক্তি মনে হয়েছে। ওনার দ্রুত আরোগ্য কামনা করি।

দিন যত গড়াচ্ছে ততই তীব্র হচ্ছে রাজ্য-রাজ্যপাল সংঘাত। নিয়মিত তাতে রসদ জুগিয়ে সংঘাতের আগুন জ্বালিয়ে রাখছেন ২ পক্ষই। যা এখুনি থামার সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছেন না বিশেষজ্ঞরাও।

বন্ধ করুন