বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > হবে স্বাস্থ্য পরীক্ষা, কয়েক ঘণ্টার জন্য বন্ধ থাকতে পারে বিদ্যাসাগর সেতু

হবে স্বাস্থ্য পরীক্ষা, কয়েক ঘণ্টার জন্য বন্ধ থাকতে পারে বিদ্যাসাগর সেতু

 বিদ্যাসাগর সেতু (PTI)

১৯৯২ সালে ৮২৩ মিটার দীর্ঘ এই কেবল সেতুটি খুলে যায়।

‌কয়েক ঘণ্টার জন্য বিদ্যাসাগর সেতুর যান চলাচল বন্ধ রাখতে চায় হুগলি রিভার ব্রিজ কমিশনারস (‌এইচআরবিসি)‌। সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার জন্যই এই সিদ্ধান্ত বলে জানা গিয়েছে। তবে কবে ও কতক্ষণ এই সেতু বন্ধ থাকবে, সে বিষয়ে অবশ্য চূড়ান্তভাবে কিছু জানানো হয়নি।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, কোনও একটি রবিবার বিদ্যাসাগর সেতুকে কিছুক্ষণের জন্য বন্ধ রাখা হতে পারে। চলতি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে এই কাজ হতে পারে বলে খবর। এইচআরবিসির প্রতিনিধিরা ইতিমধ্যে সেতুটি পরিদর্শন করেছেন। কলকাতা পুলিশকে এই বিষয়ে মৌখিকভাবেও জানানো হয়েছে। কলকাতা পুলিশের এক ট্র্যাফিক কর্তা জানান, আগে এইচআরবিসির তরফে লিখিত প্রস্তাব দেওয়া হোক। তারপর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। কবে ও কতক্ষণ সেতুটিকে বন্ধ রাখা যায়।

তিন বছর আগে বিদ্যাসাগর সেতুর স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরীক্ষা করানো হয়েছিল। সেই সময়ই বেশ কিছু ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়। পুলিশ সূত্রে খবর, টালা সেতু বন্ধ থাকায় এই বিদ্যাসাগর সেতু দিয়ে প্রধানত পণ্যবাহী গাড়ি যাতায়াত বেশি করে। সেতুটিকে যদি কয়েক ঘণ্টার জন্য বন্ধ রাখা হয়, তাহলে সেতুটির দুই প্রান্তে যানজট হতে পারে। ফলে এই সব গাড়ি চলাচল নিয়ন্ত্রণের জন্য কলকাতা পুলিশের পাশাপাশি পোর্ট ট্রাস্ট, রাজ্য পুলিশের ট্র্যাফিক ও এডিজি ট্রাফিককেও এই বিষয়ে জানানো দরকার। এইচআরবিসির কর্তাদের কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সকলের সঙ্গেও কথা বলা হয়। সেইসঙ্গে ডায়মন্ড হারবার ও হাওড়া জেলা পুলিশের সঙ্গেও কথা বলা প্রয়োজন বলে জানানো হয়েছে। উল্লেখ্য, ১৯৯২ সালে ৮২৩ মিটার দীর্ঘ এই কেবল সেতুটি খুলে যায়।

বন্ধ করুন