বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > সন্ত্রাসের ছবিই ফিরল কলকাতা পুরভোটে, ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডে বোমাবাজি, জখম যুবক
সাত সকালেই বোমাবাজি কলকাতা পুরসভার ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডে

সন্ত্রাসের ছবিই ফিরল কলকাতা পুরভোটে, ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডে বোমাবাজি, জখম যুবক

  • রাস্তার উপর বোমের দাগ স্পষ্ট। আর সেই দাগ নতুন করে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে ভোটারদের মনে।

কলকাতা পুরভোটে সন্ত্রাস কতটা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে শাসকদল, তা নিয়ে প্রশ্নটা গত কয়েকদিন ধরেই উঠছিল। তবে রবিবার ভোটের সকালে দেখা গেল তৃণমূল নেতৃত্বের যাবতীয় হুঁশিয়ারিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে সেই সন্ত্রাসের আবহই ফিরে এল কলকাতার পুরভোটে। এনিয়ে রাজনৈতিক দলগুলি একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তুলেছে। এদিন সকালে খান্না হাই স্কুলের সামনে আচমকা বোমাবাজি শুরু হয়ে যায়। এরপর টাকি স্কুলের সামনেও পরপর দুটি বোমা মারা হয়। বোমার আঘাতে স্থানীয় এক যুবক জখম হয়েছেন। স্থানীয় সূত্রে খবর, ওই যুবকের ডান পায়ে আঘাত লেগেছে। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে ঘটনার পরই এলাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী আসে। 

এদিকে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বোমাবাজি চালিয়েছিল। ভোটের সকালে স্থানীয় এলাকায় সন্ত্রাসের পরিবেশ তৈরির জন্য এভাবে বোমাবাজি করা হয়েছে। তবে এনিয়ে কংগ্রেস নেতৃত্বের প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। অন্যদিকে সিপিএম নেতৃত্বের দাবি এই ঘটনায় তৃণমূল সরাসরি যুক্ত। তারা এলাকায় অশান্তি পাকানোর চেষ্টা করছে। অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।

 পুলিশের দাবি বোমাবাজির ঘটনায় কারা যুক্ত তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তাদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়ায় যাতে কোনও প্রভাব না পড়ে সেটা দেখা হচ্ছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ বাহিনী আনা হচ্ছে।এদিক গোটা ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক আতঙ্ক ছড়ায়। বুথ থেকে ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে বোমাবাজির ঘটনাকে ঘিরে শোরগোল পড়ে গিয়েছে এলাকায়। রাস্তার উপর বোমের দাগ স্পষ্ট। আর সেই দাগ নতুন করে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে ভোটারদের মনে। 

বন্ধ করুন