বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > আইনি জটিলতায় মুখ্যসচিব, ৮ দিনে দ্বিতীয়বার অবমাননার রুল জারি কলকাতা হাই কোর্টের
মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী
মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী

আইনি জটিলতায় মুখ্যসচিব, ৮ দিনে দ্বিতীয়বার অবমাননার রুল জারি কলকাতা হাই কোর্টের

  • আট মাসেও আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী পদক্ষেপ করা হয়নি। এর জেরেই স্বশরীরে আদালতে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীকে। এর আগে অপর এক মামলাতেও হাজিরা দিতে বলা হয়েছিল মুখ্যসচিবকে।

দক্ষিনবঙ্গ পরিবহণ সংস্থা সংক্রান্ত একটি মামলায় আদালত অবমাননার দায়ে রুল জারি করা হল মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীর বিরুদ্ধে। আগামী ২০ মে আদালতে তাঁকে স্বশরীরে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। হাজিরা দিয়ে মুখ্যসচিবকে জানাতে বলা হয়েছে, কেন আদালতের নির্দেশ মানা হয়নি। মুখ্যসচিবের পাশাপাশি একই অভিযোগে প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি ট্রান্সপোর্ট ও অর্থ সচিবকেও তলব করা হয়েছে। উল্লেখ্য, এর আগে অপর এক মামলায় এক সপ্তাহ আগেই মুখ্যসচিব এবং অর্থসচিবের বিরুদ্ধে রুল জারি করা হয়েছিল আদালতের তরফে।

জানা গিয়েছে, পরিবহণ সংস্থার অবসরপ্রাপ্ত কর্মী সনত কুমার ঘোষ একটি আবদেন দায়ের করে দাবি জানিয়েছিলেন যাতে অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের জন্য পেনশন স্কিম চালু কর হয়। এর প্রেক্ষিতে বিচারপতি অরিন্দম মুখোপাধ্যায় গতবছর সেপ্টেম্বর মাসে মুখ্যসচিব, প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি ট্রান্সপোর্ট ও অর্থসচিবকে নির্দেশ দেন যাতে আলোচনা করে একটি স্কিম নির্ধারণ করা হয়। যদিও আট মাস কেটে গেলেও সেই নির্দেশ মানা হয়নি। তারপরই এদিন আদালত রুল জারি করে।

আরও পড়ুন: চাকরিপ্রার্থীদের বিক্ষোভে ধুন্ধুমার পিএসসি ভবন, অসুস্থ হয়ে পড়লেন অনেকে

এর আগে রাজ্যের মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীর বিরুদ্ধে গত ২১ এপ্রিল আদালত অবমাননার রুল জারি করা হয়েছিল। চার বছর পুরোনো এক মামলায় হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীর বিরুদ্ধে এই রুল জারি করে বিচারপতি শেখ ববি শরাফের একক বেঞ্চ। সেই মামলায় রুল জারি করা হয়েছিল অর্থসচিবের বিরুদ্ধেও। প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে মুকুন্দপুর নোবেল মিশন স্কুলকে সরকারি তকমা দিতে রাজ্যকে নির্দেশ দিয়েছিল হাই কোর্ট। কিন্তু সেই নির্দেশ চার বছরেও মানা হয়নি। এর প্রেক্ষিতেই দুই আমলার কাছে জবাব চাওয়া হয় আদালতের তরফে।

বন্ধ করুন