বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মমতাকে টুইট খোঁচার পর এবার মুখ্যসচিবকে তলব রাজ্যপাল ধনখড়ের
জগদীপ ধনখড়। (ফাইল ছবি)
জগদীপ ধনখড়। (ফাইল ছবি)

মমতাকে টুইট খোঁচার পর এবার মুখ্যসচিবকে তলব রাজ্যপাল ধনখড়ের

  • রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসা এবং আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে জানতে চেয়ে রাজ্যর মুখ্যসচিব এইচকে দ্বিবেদীকে তলব করলেন রাজ্যপাল।

রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে গতকাল রাতেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ট্যাগ করে টুইট করেছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখ়ড। এরপর এবার রাজ্যর মুখ্যসচিব এইচকে দ্বিবেদীকে তলব করলেন রাজ্যপাল। রাজ্যের বর্তমান আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে জানতে চেয়ে দ্বিবেদীকে তলব করেছেন রাজ্যপাল। রাজ্যপাল নিজের চিঠিতে উল্লেখ করেছেন, প্রতিদিন রাজ্য আরও বেশি করে আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটছে। পাশাপাশি প্রতিহিংসাপরায়ণ মনোভাবও বেড়েই চলেছে রাজ্যে।

উল্লেখ্য, এর আগে গলকাল রাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ট্যাগ করে রাজ্যপাল টুইট করে লিখেছিলেন, 'রাজ্যে যেভাবে ক্রমাগত ভোট পরবর্তী হিংসা চলছে, তাতে মানবতা লজ্জায় পড়বে। পুলিশ কিছু করছে না। ফলে হিংসায় যুক্ত ব্যক্তিদের সাহস বাড়বে। পুরোটাই বিরোধীদের শাস্তি দিতে করা হচ্ছে।'

রজ্যে হিংসার আবহাওয়া বিরাজ করছে, এই অভিযোগ এনে ক্ষোভ উগরে দিয়ে রাজ্যপাল রাজ্য পুলিশকে ট্যাগ করে পুলিশ প্রশাসনের বিরুদ্ধে বার্তা দিয়েছেন। রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা বর্তমান পরিস্থিতিতে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। রাজ্যপালের অভিযোগ, রাজ্যে এখনও বিভিন্ন জায়গায় অব্যাহত রয়েছে ভোট পরবর্তী হিংসা। এই দাবির প্রমাণ স্বরূপ একটি ভিডিয়ো আপলোড করেন রাজ্যপাল।

এর আগে রাজ্য পুলিশের ডিজি পদে বীরেন্দ্রের নিয়োগ বেআইনি বলে দাবি করেছিলেন। এই বিষয়ে এদিন একাধিক টুইট করেন রাজ্যপাল। তিনি লেখেন, 'ভারপ্রাপ্ত কাউকে ডিজি পদে বসানো উচিত না। এই বিষয়ে শীর্ষ আদালতের নির্দেশ মান্য করা উচিত রাজ্য সরকারের।' তিনি আরও লেখেন, 'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের উচিত ভারপ্রাপ্ত কাউকে অস্থায়ী ভিত্তিতে নিয়োগ না করে ইউপিএসসি প্যানেলের থেকে একজনকে ডিজিপি পদে নিয়োগ করা। এই বিষয়ে ২০১৯ সালের ৬ জানুয়ারি পশ্চিমবঙ্গ সরকারের আবেদন নাকচ করেছিল সুপ্রিম কোর্ট।'

বন্ধ করুন