বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > WB Health department: সরকারি হাসপাতালে বাড়ছে বিদেশি রোগীদের ভিড়, চিকিৎসা নীতি ঠিক করবে রাজ্য

WB Health department: সরকারি হাসপাতালে বাড়ছে বিদেশি রোগীদের ভিড়, চিকিৎসা নীতি ঠিক করবে রাজ্য

স্বাস্থ্য ভবন

বেশ কিছু দেশ থেকে এ রাজ্যে আসা লোকজন সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা করাচ্ছেন। যেমন সম্প্রতি আইসল্যান্ডের বাসিন্দা এক মহিলা চিকিৎসাধীন ছিলেন এসএসকেএম হাসপাতালে। এছাড়া, ভিন রাজ্য, বাংলাদেশ অন্যান্য দেশ থেকে রোগীরা সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা নিচ্ছেন।

রাজ্যের সরকারি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে বাংলাদেশের রোগীদের ভিড় বাড়ছে। শুধু বাংলাদেশই নয়, অন্যান্য অনেক দেশ যেমন আইসল্যান্ড, কাজাখস্তান, জিব্রাল্টারের মতো দেশের রোগীরাও এ রাজ্যের সরকারি হাসপাতালে ভিড় করছেন। তাই পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে বিদেশীদের জন্য চিকিৎসা নীতি ঠিক করতে উদ্যোগী হয়েছে রাজ্য সরকার। এর জন্য পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করেছে স্বাস্থ্য দফতর। আগামী ৩১ মে’র মধ্যে এই কমিটি রিপোর্ট জমা দেবে।

স্বাস্থ্য ভবনের আধিকারিকরা নথি খতিয়ে দেখে জানতে পেরেছেন, বেশ কিছু দেশ থেকে এ রাজ্যে আসা লোকজন সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা করাচ্ছেন। যেমন সম্প্রতি আইসল্যান্ডের বাসিন্দা এক মহিলা চিকিৎসাধীন ছিলেন এসএসকেএম হাসপাতালে। এছাড়া, ভিন রাজ্য, বাংলাদেশ অন্যান্য দেশ থেকে রোগীরা সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা নিচ্ছেন। ২০১৮ সাল থেকে এখনও পর্যন্ত কতজন বিদেশি রোগী সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন তা জানতে পরিসংখ্যান চেয়ে পাঠান স্বাস্থ্য আধিকারিকরা। তাতে দেখা যায়, কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে ৩১২ জন বাংলাদেশি, ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজে ৪০ জন বাংলাদেশি এবং এসএসসকেএমে বাংলাদেশ ছাড়াও ১১ জন আইসল্যান্ডের রোগী চিকিৎসা করিয়েছেন। এছাড়াও ছিলেন, কাজাখস্তানের দুজন এবং একজন জিব্রাল্টারের বাসিন্দা। 

এইভাবেই বছরের পর বছর রাজ্যের সরকারি হাসপাতালে বিদেশি এবং ভিন রাজ্যের নাগরিকরা বিনামূল্যে চিকিৎসা করিয়েছেন। এক স্বাস্থ্যকর্তা জানিয়েছেন, গত কয়েক বছরে এ রাজ্যে সরকারি হাসপাতালে বাংলাদেশি রোগীদের সংখ্যা অনেকটাই বেড়েছে। এছাড়াও, ভিন রাজ্যের রোগীদের সংখ্যাও বেড়েছে এবং তাঁরা বিনামূল্যে চিকিৎসা পেয়েছেন। অথচ এই সমস্ত চিকিৎসা পরিষেবা দিতে গিয়ে রাজ্য সরকারের লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ হচ্ছে। এই অবস্থায় বিদেশি নাগরিকদের জন্য স্বাস্থ্য নীতি কী হওয়া উচিত তা ঠিক করার জন্য এই কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটির চেয়ারম্যান করা হয়েছে এসএসকেএমের সুপার মণিময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে। এছাড়াও, স্বাস্থ্য দফতরের এক অধিকর্তা সুপর্ণা দত্ত, যুগ্ম স্বাস্থ্য-অধিকর্তা শুভ্রাংশু চক্রবর্তী, আর এক অধিকর্তা অশ্বিনীকুমার মাজি এবং অতিরিক্ত স্বাস্থ্য-শিক্ষা অধিকর্তা সুমন ভট্টাচার্য এই কমিটিতে রয়েছেন।

রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা সিদ্ধার্থ নিয়োগী জানিয়েছেন, বর্তমানে সরকারি হাসপাতালে ভরতি হতে গেলে আধার কার্ড বা স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নম্বর নথিভুক্ত করতে হয়। তবে বিদেশি নাগরিকদের ক্ষেত্রে নীতি কী হবে? তাদের চিকিৎসা পরিষেবা কীভাবে দেওয়া হবে? সেই সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত নেবে এই কমিটি।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বাংলার মুখ খবর

Latest News

Untitled যেন পাহাড়ি কন্যে! বন্ধুদের সঙ্গে কাশ্মীরের গ্রামে সারা আলি খানStory বাংলাদেশে কোটা বিরোধী আন্দোলনে মৃত্যুর সংখ্য়া ১৯৭, কার্ফুর মেয়াদ বাড়ল ঘূর্ণাবর্ত-অক্ষরেখায় বৃষ্টি চলবে বাংলায়, শনি থেকে ভারী বর্ষণ, রবিতে কোন ৪ জেলায়? ভোটে জিতেই রচনার হাতে মহানায়ক সম্মান, নচিকেতা সহ পুরস্কার পেলেন আর কারা? পাঁচ বছর অন্তর মেগা নিলাম সহ তিনটি নিয়মের পরিবর্তন চায় IPL-এর ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলি বেলিসের সঙ্গে সম্পর্কে ইতি টানতে চলেছে PBKS, খোঁজ চলছে ভারতীয় কোচের- রিপোর্ট 'একজন বহিরাগত…' ধনুশের কথা শুনে ক্ষেপে লাল নেটিজেনরা! কী এমন বললেন অভিনেতা? নেত্রীর নির্দেশ বলে কথা! গাড়ি ছেড়ে সাইকেলে কোচবিহারের প্রাক্তন তৃণমূল MP মুখে হাসি, বারন্দায় পাশাপাশি দাঁড়িয়ে… বিচ্ছেদের পর ফের কাছাকাছি ইন্দ্রনীল-বরখা আগেই যিশু জানিয়েছিলেন ২ সুন্দরীর থেকে প্রেম প্রস্তাব পেলে ফেরাবেন না! কারা তাঁরা

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.