বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > রাহুলদার অভিমান হয়েছে, কথা বললেই সেরে যাবে: BJP-র কেন্দ্রীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

রাহুলদার অভিমান হয়েছে, কথা বললেই সেরে যাবে: BJP-র কেন্দ্রীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা

  • সদ্য নিযুক্ত কেন্দ্রীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা জানান, ‘রাহুলদা আমাদের দলের বর্ষীয়ান নেতা। বিজেপিকে এখানে আনতে ওর ভূমিকা অপরিসীম। তবে সবার জীবনেই চড়াই উতরাই থাকে। সেটাকে মেনে নিতে হয়।

রাহুল সিনহার বিদ্রোহকে আপাতত ততটা গুরুত্ব দিতে রাজি নয় বিজেপি। শনিবার সন্ধ্যায় অন্তত এমনটাই মনে হল দলের নবনিযুক্ত কেন্দ্রীয় সম্পাদক অনুপম হাজরার কথায়। এদিন অনুপম বলেন, রাহুলদার হয়তো অভিমান হয়েছে। কথা বলে মিটিয়ে নেব। 

শনিবার প্রকাশিত হয়েছে বিজেপির কেন্দ্রীয় পদাধিকারীদের নতুন তালিকা। তাতে নড্ডার টিমে জায়গা হয়নি রাহুল সিনহার। দলের কেন্দ্রীয় সম্পাদক পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে তাঁকে। বদলে কেন্দ্রীয় সম্পাদক করা হয়েছে অনুপম হাজরাকে। গুরুত্ব বাড়িয়ে মুকুল রায়কে করা হয়েছে দলের সহ সভাপতি। 

এর পরই এক ভিডিয়ো জারি করে দলের বিরুদ্ধে সুর চড়ান রাহুল সিনহা। বলেন, ৪০ বছর ধরে দলের সৈনিক হিসাবে কাজ করছি। আজ কয়েকটা তৃণমূল নেতাকে জায়গা করে দেওয়ার জন্য আমাকে সরিয়ে দেওয়া হল। দলের তরফে এই পুরস্কার পেলাম। আমি ১০ – ১২ দিনের মধ্যে আমার ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা সম্পর্কে জানাবো।

এর পরই দলের সদ্য নিযুক্ত কেন্দ্রীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা জানান, ‘রাহুলদা আমাদের দলের বর্ষীয়ান নেতা। বিজেপিকে এখানে আনতে ওর ভূমিকা অপরিসীম। তবে সবার জীবনেই চড়াই উতরাই থাকে। সেটাকে মেনে নিতে হয়। ওর কথা শুনে বুঝলাম, অভিমান হয়েছে। একদিন চা খেতে খেতে সব ঠিক করে নেব।’

বছর কয়েক হল বিজেপিতে আসা অনুপমের দৌত্যে রাহুলের মন গলে কি না সেদিকেই এখন তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল।

 

বন্ধ করুন