বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > ভর্তুকিতেও ভিজল না চিঁড়ে, দিনপ্রতি ৫০০ টাকায় বাস চালাতে নারাজ মালিকদের সংগঠন
প্রতীকি ছবি (প্রতীকি ছবি)
প্রতীকি ছবি (প্রতীকি ছবি)

ভর্তুকিতেও ভিজল না চিঁড়ে, দিনপ্রতি ৫০০ টাকায় বাস চালাতে নারাজ মালিকদের সংগঠন

  • ওয়েস্ট বেঙ্গল বাস অ্যান্ড মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের তরফে শনিবার বৈঠক করা হয়। বৈঠকে বাসমালিকদের তরফে জানানো হয়েছে, ভর্তুকির ১৫,০০০ টাকা নেবে না ওই সংগঠনের সদস্য কোনও বাসমালিক।

ভর্তুকিতে ভিজল না চিঁড়ে। বাসপিছু ১৫,০০০ টাকা ভর্তুকিতে তাদের সমস্যার কোনও সুরাহা হবে না বলে জানিয়ে বাসভাড়া বৃদ্ধির দাবিতেই অনড় রইল বাসমালিকদের একটি সংগঠন। 

বেসরকারি বাস রাস্তায় নামাতে শুক্রবার নবান্নে বাসপিছু মাসে ১৫০০০ টাকা ভর্তুকি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানান, আপাতত ৩ মাস এই ভর্তুকি পাবেন বাসমালিকরা। এই প্রস্তাবে অধিকাংশ বাসমালিক গাড়ি চালাতে রাজি বলেও দাবি করেন তিনি। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই বেঁকে বসল একটি সংগঠন। 

ওয়েস্ট বেঙ্গল বাস অ্যান্ড মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের তরফে শনিবার বৈঠক করা হয়। বৈঠকে বাসমালিকদের তরফে জানানো হয়েছে, ভর্তুকির ১৫,০০০ টাকা নেবে না ওই সংগঠনের সদস্য কোনও বাসমালিক। সরকারের নির্দেশ মতো সমস্ত বাসও রাস্তায় নামাবে না তারা। ভাড়া না বাড়ালে লোকসান সামাল দিয়ে যে ভাবে বাস চলছিল, সেভাবেই চলবে। 

সংগঠনের এক কর্তা বলেন, এই ভর্তুকিতে আমাদের কোনও সুরাহা হবে না। আমাদের রোজ ১৫০০ থেকে ২০০০ টাকা ক্ষতি হচ্ছে। সেখানে সরকার দিনপ্রতি ভর্তুকি দিচ্ছে মাত্র ৫০০ টাকা। এই টাকা তো গাড়ি রাস্তায় নামলে ট্রাফিকের ফাইন দিতে চলে যাবে। 

সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে, তারা যে সরকারের প্রস্তাব মানছেন না তা সোমবার পরিবহণমন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হবে। 

 

বন্ধ করুন