বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > West Bengal Cabinet Reshuffle: রাজভবনের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিতের তালিকায় রয়েছেন কারা? দেখে নিন
ব্যতিক্রমী নজির গড়ে এবার আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বিরোধী দলগুলির নেতাদেরও

West Bengal Cabinet Reshuffle: রাজভবনের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিতের তালিকায় রয়েছেন কারা? দেখে নিন

  • রাজভবন সূত্রের খবর, বুধবারের শপথগ্রহণে আমন্ত্রণ পেয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু। এছাড়া আমন্ত্রণ পেয়েছেন তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

অপেক্ষা আর কয়েকঘণ্টার। বুধবার বিকেল ৪টেয় হতে চলেছে রাজ্য মন্ত্রিসভায় রদবদল। নতুন অন্তত ৭ জন মন্ত্রী পেতে চলেছেন রাজ্যবাসী। বাদ যেতে পারেন অন্তত ৪ জন। আর এই গোটা প্রক্রিয়া প্রত্যক্ষ করার জন্য রাজভবনে আমন্ত্রণ পেয়েছেন একাধিক গণ্যমান্য ব্যক্তি। ব্যতিক্রমী নজির গড়ে এবার আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বিরোধী দলগুলির নেতাদেরও।

রাজভবন সূত্রের খবর, বুধবারের শপথগ্রহণে আমন্ত্রণ পেয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু। এছাড়া আমন্ত্রণ পেয়েছেন তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে তিনি রাজভবনে যাবেন না বলেই সূত্রের খবর।

দুর্নীতিগ্রস্ত পরেশ অধিকারীকে মন্ত্রিসভা থেকে অপসারণের দাবিতে হাইকোর্টে মামলা

এছাড়া রাজ্য প্রশাসনের একাধিক শীর্ষকর্তা বুধবারের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পেয়েছেন। আমন্ত্রণ পেয়েছেন নির্বাচন কমিশনার। আমন্ত্রণ পেলেও বিমানবাবু ও শুভেন্দুবাবু অনুষ্ঠানে হাজির হবেন কি না তা জানা যায়নি। ইতিমধ্যে রাজভবনে শপথগ্রহণের প্রস্তুতি শেষ। বিকেল ৪টেয় নতুন মন্ত্রীদের শপথবাক্য পাঠ করাবেন রাজ্যপাল লা গণেশন।

তৃণমূল সূত্রের খবর, ৮ জন নতুন মন্ত্রি শপথ নিতে পারেন এদিন। তালিকায় রয়েছে স্নেহাশিস চক্রবর্তী, প্রদীপ মজুমদার, পার্থ ভৌমিক, বাবুল সুপ্রিয়, সত্যজিৎ বর্মন, তাজমুল হোসেন, উদয়ন গুহ, বিপ্লব রায়চৌধুরীর নাম। এর মধ্যে বেশ কয়েকজনের সম্ভাব্য মন্ত্রকও সামনে এসেছে।

উল্টোডাঙা উড়ালপুলের একাধিক জায়গায় ফাটল দেখা দিয়েছে, আতঙ্কে মানুষজন

তৃণমূল সূত্রে খবর, পরেশ অধিকারীর জায়গায় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী হতে পারেন স্নেহাশিস চক্রবর্তী। সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণের পর পঞ্চায়েত দফতর দেখভাল করছিলেন পুলক রায়। সেই মন্ত্রকের দায়িত্ব পেতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রীর কৃষি উপদেষ্টা প্রদীপ মজুমদার। এছাড়া তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী হতে পারেন পার্থ ভৌমিক।

মন্ত্রিসভা থেকে বাদ পড়তে পারেন রত্না বেরা, সৌমেন মহাপাত্র ও পরেশচন্দ্র অধিকারী।

রাজ্য মন্ত্রিসভায় রদবদল নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে জল্পনা চলছিল। সুব্রত মুখোপাধ্যায় ও সাধন পান্ডের মৃত্যুতে খালি হয়েছিল গুরুত্বপূর্ণ ২টি মন্ত্রক। তার ওপর পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারির পর রদবদল না করে আর উপায় ছিল না মুখ্যমন্ত্রীর কাছে। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, একগুচ্ছ নতুন মুখ এনে মন্ত্রিসভার ভাবমূর্তি বদলাতে চাইছেন মমতা। শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিতে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ফ্ল্যাট থেকে ৫০ কোটি টাকা উদ্ধার ও তার পর পার্থবাবুর গ্রেফতারির ঘটনায় মন্ত্রিসভার ভাবমূর্তি যে ধাক্কা খেয়েছে তা কার্যত মেনে নিয়েছেন মমতা। নতুনদের এনে মুখ্যমন্ত্রী ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারের চেষ্টা করছেন বলে মত অনেকের।

 

বন্ধ করুন